ঢাকা, বুধবার 25 July 2018,১০ শ্রাবণ ১৪২৫, ১১ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পণ্যজীবনের পরতে পরতে এখন ইন্টারনেট প্রযুক্তি

জাফর ইকবাল : প্রযুক্তির কল্যাণে এখন সবই সম্ভব। ইন্টারনেট পণ্যজীবনের পরতে পরতে এখন ইন্টারনেট প্রযুক্তি সেবার বর্ণিল ছোঁয়া। ভূগোল জয় করে অ্যামাজন, আলিবাবা, ই-বে কিংবা ফ্লিপকার্টের মতো ইন্টারনেট প্রযুক্তি পণ্য একসময়ের বিশ্ব-মন্দা কাটিয়ে অর্থনীতিতে যুক্ত করেছে নতুন শক্তি। এই শক্তিতে অংশী হয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আমাদের বিকাশ, বিডিজবস, হ্যান্ডিমামা, ডক্টরোলা, সেবা এক্সওয়াইজেড-এর মতো প্রযুক্তি পণ্য-সেবা। এসব সেবায় এগিয়ে যাচ্ছে পিছিয়ে পড়া মানুষেরা। লেনদেন-কেনাকাটা, যাতায়াত, কুরিয়ার, ভাড়া ও চিকিৎসা সেবার মতো প্রায় প্রতিটি খাতেই দিন দিন বাড়ছে ইন্টারনেট পণ্যের সমাদর। অনলাইন পেমেন্ট ও ক্যাশ অন ডেলিভারি-দুইভাবেই সেবা মেলে এসব  পণ্য (ওয়েবসাইট, অ্যাপ) থেকে। কার্ডের মাধ্যমে কিংবা ডিজিটাল ওয়ালেটেও পরিশোধ করা যায় সেবামূল্য।  
খাই-দাই : খেতে ইচ্ছে করলে রান্না না করলেও এখন চলে। প্রয়োজন নেই রেস্তরাঁয় যাওয়ার। শুধু অ্যাপের মাধ্যমে অর্ডার করলেই হলো। বহুজাতিক ফুডপান্ডার পাশাপাশি হাংরিনাকি, ফুডমার্ট, খানা হিরো এবং কুক আন্টের মতো অ্যাপ ভোজন রসিকদের জীবন রাঙাচ্ছে হরদম। এর মধ্যে কুক অ্যান্টের মাধ্যমে ঘরের খাবারও অন্যের সঙ্গে শেয়ার করা যায়।
বাজার সদাই : বাজারে না গিয়েও চাল-ডাল, মাছ-মাংস সহ নিত্য প্রয়োজনীয় সদাইপাতি পৌঁছে যাচ্ছে ঘরের দরজায়। আর এই কাজটা করতে হলে মুঠোফোনে থাকতে হবে ইন্টারনেট। বায়না করতে হবে চালডাল, বাজারি, ই-শপ, দারাজ-এর মতো বেশ কিছু ওয়েব সাইটে। শাকসবজি, মাছ, মধু, হস্তশিল্পসহ নিত্যপণ্য কেনা যায় এসব সাইট থেকে।
পরিবহন সেবা : গাড়ি নেই তাতে কী? মোবাইল ফোন আর ইন্টারনেট থাকলেই সই। নেট থেকে কল করতেই গাড়ি এসে হাজির হয় দুয়ারে। উবারের পাশাপাশি বাংলার চলো, পাঠাও, পিংক স্যাম, মেট্রো ড্রাইভার, ও ভাই, ও বোন-এর মতো কিছু অন ডিমান্ড রাইড শেয়ার সার্ভিস এখন তাই আটপৌরে জীবনে নিয়ে এসেছে স্বাচ্ছন্দ্যময় যাতায়াত সুবিধা। এর মধ্যে পিংক স্যাম অ্যাপে নারীই যাত্রী, নারীই চালক  আর মেট্রো ড্রাইভ-এর মাধ্যমে সিএনজি ভাড়া করা যায়। ২৪ ঘণ্টায় পণ্য পরিবহন সেবা পাওয়া যায় জিপিএস ট্র্যাকিং সুবিধাযুক্ত ট্রাক লাগবে নামের সেবায়।
বাসা-বাড়ি ভাড়া : মোবাইল ফোনে পচ্ছন্দমতো বাড়ি, জমি কিংবা অফিস স্পেস কেনা-বেচার জন্য ইতোমধ্যেই নাগরিকদের কাছে পরিচিত হয়ে উঠেছে লামুডি, পিবাজার এমনকি বিক্রয় ডট কম। এতে রয়েছে টু লেট, ক্রয়-বিক্রয়, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, এজেন্ট সেবা, পণ্য বিক্রয়সহ আরও অনেক কিছু। আবার অফিস বা বাসার মালামাল পরিবহনের কাজ করছে প্যাকএনশিফ্ট ডট কম।  
টিকিট ক্রয় : বিমান, বাস, ট্রেন এবং লঞ্চ সব পরিবহনের টিকেটই এখন মেলে অনলাইনে। সহজ থেকে সোহাগ, হানিফ, সৌদিয়া, এ আর ট্রাভেলস, টিআর ট্রাভেলসসহ ১১টি প্রতিষ্ঠানের টিকিট পাওয়া যায়। আসা-যাওয়া ডট কম-এ মেলে লঞ্চের টিকেট। অন্যদিকে ট্রেনের তথ্য পেতে ও টিকেট বুকিং দেওয়া যায় আমাদের রেল অ্যাপে। এসএমএসে টিকিট কাটার সুবিধা আছে ট্রেন টিকিট অ্যান্ড শিডিউল ইন বিডিতে।
লেন-দেন : অনলাইনে কেনা পণ্য বা সেবার মূল্য পরিশোধ কিংবা ডিজিটাল লেনদেনে দারুণ জনপ্রিয় বিকাশ। এর মতো রয়েছে শিওরক্যাশ, ইউক্যাশ ইত্যাদি। আর সম্প্রতি পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল ওয়ালেট হয়ে নগরজীবনে নতুন অতিথি হয়ে এসেছে আইপে। মোবাইল অ্যাপস, সোশ্যাল নেটওয়ার্ক, ওয়েব পোর্টাল, কার্ড, পিওএস, এনএফসি, কিউআর ইত্যাদি প্রযুক্তির বহুমাত্রিক ক্ষেত্রে ডিজিটাল অর্থনৈতিক সেবা নিয়ে আবির্ভূত হয়েছে ডি-মানি।
চাকরি-বাকরি : এখন চাকরির সন্ধান মিলছে অনলাইনে। বাংলাদেশে ইন্টারনেটভিত্তিক এই সেবার পথ দেখিয়েছে বিডিজবস ডট কম। পরবর্তী সময়ে এই পথ অনুসরণে গড়ে উঠেছে জবসবিডি, জবসইনবিডি, চাকুরিমেলা, ফিমেলজবস ইত্যাদি পোর্টাল।
অনলাইন সেবা : ঘর-দোর পরিষ্কার থেকে শুরু করে ফ্রিজ-টিভি মেরামতের মতো সেবা অনলাইনে ফেরি করে সেবা ডট এক্সওয়াইজেড। এই সার্ভিস মার্কেট প্লেস থেকে হোমঅ্যাপ্লায়েন্স মেরামত করা ছাড়াও ল্যাপটপ, ডেস্কটপ এমনটি লিফটও সার্ভিসিংও করানো যায়। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যবিষয়ক সেবা পাওয়া যায় ডক্টরসবিডিতে। অন্যদিকে, ই-স্বাস্থ্য কার্ডের মাধ্যমে ফোনে ডাক্তারের সিরিয়াল নেয়া ও পরামর্শ সেবা দেয় ডক্টরোলা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ