ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 July 2018,১১ শ্রাবণ ১৪২৫, ১২ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জাফর ইকবালের ওপর হামলা ॥ ৬ জন অভিযুক্ত

সিলেট ব্যুরো : গত ২ মার্চ সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় ৬ জনকে অভিযুক্ত করে আজ বৃহস্পতিবার চার্জশিট দিতে যাচ্ছে এসএমপি পুলিশ। গতকাল বুধবার সিলেট মহানগর পুলিশের কার্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, জাফর ইকবাল হত্যা চেষ্টা মামলায় ৬ জনকে অভিযুক্ত করে আজ বৃহস্পতিার অভিযোগপত্র দাখিল করবেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। অভিযুক্তরা হলেন- ফয়জুল হাসান ফয়েজ, ফয়েজের বন্ধু মো. সোহাগ মিয়া, ফয়েজের পিতা হাফেজ মাওলানা আতিকুর রহমান, মাতা মোছাম্মৎ মিনারা বেগম, মামা মো. ফজলুর রহমান এবং ফয়েজের ভাই এনামুল হাসান। এদের সবাই আটক আছেন বলে জানিয়েছেন পরিতোষ ঘোষ।
তিনি বলেন, ২০০৯ সালের সন্ত্রাসবিরোধী আইনের ৮, ১১, ১২ ও ১৩ ধারায় চার্জশিট দাখিল করা হচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, মামলার প্রধান আসামী ফয়জুল হাসান নিজেই জাফর ইকবালকে হত্যার পরিকল্পনা করে। ৩/৪ মাস থেকেই সে জাফর ইকবালকে হত্যার সুযোগ খুঁজতে থাকে। আদালতে এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার কথাও স্বীকার করে ফয়জুল।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২ মার্চ শাবির মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ইইই ফেস্টিভ্যালে’ জাফর ইকবালকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার মাথার পেছন দিকে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরি দিয়ে আঘাত করে ফয়জুল হাসান। এ ঘটনায় শাবির রেজিস্টার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন এসএমপির জালালাবাদ থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন।
কাউন্সির প্রার্থী সাব্বিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ
১৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী সাব্বির আহমদ চৌধুরী (মিষ্টি কুমড়া প্রতীক) নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে ভোট ক্রয় করছেন। গত মঙ্গলবার রাতে তাতীপাড়া মসজিদ সংলগ্ন বাসায় একটি ফাউন্ডেশনের কার্ড ও মসজিদ দেখিয়ে পবিত্র কুরআনের উপর এক হাজার টাকা করে রেখে পুরুষ ও নারী ভোটারদের মধ্যে বিতরণ করছিলেন।
গতকাল বুধবার বেলা ২টায় সিলেট প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসীর পক্ষে এমন অভিযোগ করেছেন ১৬নং ওয়ার্ডের সওদাগরটুলা-৩২ এর বাসিন্দা দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, গতকাল বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। খবর পেয়ে নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম ও একদল পুলিশ ঐ বাসায় যায়। তখন কাউন্সিলর প্রার্থী সাব্বির আহমদ চৌধুরী টাকা ও কুরআন শরীফ তাৎক্ষণিকভাবে সরিয়ে নেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ