ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 July 2018,১১ শ্রাবণ ১৪২৫, ১২ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজশাহীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

রাজশাহী অফিস : রাজশাহীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাজ্জাদ হোসেন নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর দামকুড়া থানার কসবা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সাজ্জাদ নগরীর উপকণ্ঠ হরিপুর বনপাড়া গ্রামের মৃত ছইমউদ্দিনের ছেলে। তার লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়।
র‌্যাবের ভাষ্য, নিহত সাজ্জাদ তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে থানায় মাদক, ডাকাতি ও অপহরণসহ ৭টি মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব একটি বিদেশী পিস্তল, ম্যাগজিন, দুই রাউন্ড গুলী ও গুলীর খোসা উদ্ধার করে। এঘটনায় আহত হন দুই র‌্যাব সদস্য। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, মাদক কেনাবেচার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫ এর একটি দল দামকুড়া থানার কসবায় অভিযানে যায়। এসময় র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারিরা হামলা করে। আত্মরক্ষায় র‌্যাবও পাল্টা গুলী করে। উভয়পক্ষের গুলী বিনিময়ের পর ঘটনাস্থলে এক ব্যক্তিকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তবে অন্যরা পালিয়ে যান। পরে ওই ব্যক্তিকে রামেক হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে জানান। এরপর খোঁজ নিয়ে নিহতের নাম পরিচয় নিশ্চিত হয় র‌্যাব।
বড় ভাইকে খুন : রাজশাহীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছোট ভাইয়ের হাসুয়ার কোপে বড় ভাই নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরীর চন্দ্রিমা থানার রামচন্দ্রপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোখলেসুর রহমান মল্লিক (৪৮) একই মহল্লার নামাজি মন্ডলের ছেলে। এ ঘটনার পর থেকে মোখলেসুরের ছোট ভাই জাহাঙ্গীর আলম পলাতক। ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। চন্দ্রিমা থানার পুলিশ জানায়, বাড়ির সামনে ময়লা ফেলাকে কেন্দ্র করে ছোট ভাই জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে মোখলেসুরের কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এর একপর্যায়ে জাহাঙ্গীর তার ভাই মোখলেসুরের পেটে হাসুয়ার কোপ দেন। এতে ঘটনাস্থলেই মোখলেসুরের মৃত্যু হয়। ঘটনার পর থেকে জাহাঙ্গীর পলাতক। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ