ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 July 2018,১১ শ্রাবণ ১৪২৫, ১২ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনার শহীদ জিয়া কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধে মামলা

খুলনা অফিস : মহেশ্বরপাশা শহীদ জিয়া মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আদালতে মামলা হয়েছে। দৌলতপুর সহকারি জজ আদালতে মামলাটি দায়ের হয়।
আদালত শুনানি শেষে কেন এই নিয়োগ প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি হবেনা, জানতে চেয়ে কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতিকে কারণ দর্শাও নোটিশ প্রদান করেছে। শহীদ জিয়া মহাবিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যক্ষ মো. তরিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ৯ জুলাই মামলাটি করেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ জুন স্থানীয় দৈনিক পূর্বাঞ্চল পত্রিকায় জিয়া কলেজের অধ্যক্ষসহ অন্যান্য কিছু পদে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। এর আগে ২০০৩ সালের ২০ সেপ্টেম্বর সকল নিয়মনীতি মেনে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ভিত্তিতে তৎকালীন জেলা প্রশাসক ও কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মো. তরিকুল ইসলামকে কলেজের অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেন। ২২ সেপ্টেম্বর থেকে তিনি অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়মিত কর্মরত ছিলেন।
বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট গাজী আব্দুল বারী জানান, ২০০৮ সালে  রাজনৈতিক পট পরিবর্তন ঘটলে স্থানীয় সংসদ সদস্য বেগম মন্নুজান সুফিয়ান কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি হন। তিনি কোন ধরনের কারণ দর্শাও নোটিশ না দিয়ে কিংবা কোনরূপ অব্যাহতি বা বরখাস্তপত্র না দিয়েই জনৈক খান শহিদুল ইসলামকে অধ্যক্ষ হিসেবে কলেজে বসিয়ে দেন। এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দৌলতপুর সহকারি জজ আদালতে ১২৭/০৯ নং দেওয়ানী মোকদ্দমা এবং খুলনা জেলা জজ ২নং আদালতে ৩১/২০১০ নং মিস আপিল মামলা বিচারধীন আছে। এ অবস্থায় নতুন করে কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রদান আইনের লঙ্ঘন। এর বিরুদ্ধে আদালতের নিষেধাজ্ঞা প্রার্থনা করে দৌলতপুর সহকারি জজ আদালতে ৮২/১৮ নং মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ