ঢাকা, বৃহস্পতিবার 20 September 2018, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কুমিল্লার আ. লীগ নেতা ঢাকা থেকে অপহৃত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা পারভেজ হোসেন সরকারকে ভর দুপুরে ঢাকায় তার লালমাটিয়ার বাসার সামনে থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।কুমিল্লার আওয়ামী লীগ নেতারা জানান, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-২ (হোমনা-তিতাস) আসনে দলের মনোনয়ন পেতে কাজ করছিলেন পারভেজ। তবে তাকে তুলে নেওয়ার পেছনে কারা থাকতে পারে, সে বিষয়ে কোনো ধারণা দিতে পারেননি তারা।  

পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়রা পুলিশকে বলেছেন, শুক্রবার দুপুরে লালমাটিয়া সি ব্লকের মসজিদে জুমার নামাজ পড়ে পারভেজ বাসার ফেরার সময় কয়েকজন তাকে জোর করে একটি কালো রঙের গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়।

পরিবারের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ এসে আশপাশের বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে। তবে কারা পারভেজকে তুলে নিয়ে গেছে সে বিষয়ে কোনো ধারণা দিতে পারেনি পুলিশ।

সিসিটিভি ফুটেজে পারভেজকে তুলে নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য সিসিটিভি ফুটেজে পারভেজকে তুলে নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছে, যারা তাকে তুলে নিয়ে গেছে তাদের কাছে ওয়্যারলেস আর অস্ত্র ছিল। তবে তারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য কিনা- সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।”

কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পারভেজ হোসেন ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে লালমাটিয়া সি ব্লকের ৩০ নম্বর বাড়িতে থাকতেন তিনি।

ওই বাড়ির নিরাপত্তারক্ষী ওমর আলী বলেন, পারভেজ হোসেন ফেরার সময় বাসার সামনেই এক লোক তার সঙ্গে কুশল বিনিময় করতে আসে এবং হাত মেলায়। তখন আরেক লোক আসে এবং দুজন মিলে জোর করে তাকে গাড়িতে তুলে নেয়। 

মোহাম্মদপুর থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা আশপাশের বাসার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে দেখছি।  কারা তাকে নিয়ে গেছে জানার চেষ্টা করছি।”

-বিডিনিউজ24

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ