ঢাকা, শনিবার 28 July 2018,১৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ইমরান খানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে কপিল দেব

নিজ দেশের হয়ে প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক দুইজন। খেলেছেন প্রায় একই সময়ে। নিজেদের সময়ের সেরা অল রাউন্ডারও তারা। একজন কপিলে দেব। অন্যজন ইমরান খান। খেলা থেকে অবসরে যাওয়ার পর ইমরান বনে যান পুরাদস্তুর রাজনীতিবিদ। এখন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। মাঠের এক সময়কার প্রতিদ্বন্দ্বী ইমরানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় খুশি কপিল দেব। ইমরানকে শুভেচ্ছা জানিয়ে কপিল দেব বলেছেন, ‘আমি খুবই খুশি। আশা করি, সে যেভাবে অধিনায়ক হিসেবে পাকিস্তান দলকে সামলিয়েছে, সেভাবে দেশকেও নেতৃত্ব দেবে।’ বুধবার পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ পর্যন্ত যা খবর, সে অনুযায়ী ইমরানের তেহরিক-ই- ইনসাফ বিপুল ব্যবধানে অন্যদের চেয়ে এগিয়ে আছে। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না আসলেও, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী যে ৬৫ বছর বয়সী এই সাবেক ক্রিকেটার হতে যাচ্ছেন তা অনেকটাই নিশ্চিত। এরই মধ্যে ইমরান সংবাদ সম্মেলনে ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্কোন্নয়ন নিয়ে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন। কপিল দেবও চান দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ বিভেদ ভুলে বন্ধুত্বের দিকে এগিয়ে আসুক। কপিলের কথায়, ‘আমি মনে করি, দেশ ক্রিকেটের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আশা করি, ইমরান ও ভারত সরকার মিলে এ অঞ্চলের শান্তির জন্য কাজ করবে। ক্রিকেটও হবে।’ রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার পর কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়েছে ইমরানকে। দীর্ঘ ২২ বছরের ধারাবাহিক পথ পরিক্রমার পর অবশেষে সাফল্যের মুখ দেখলেন সাবেক এই ক্রিকেটার। কপিলও স্মরণ করলেন সে কথা, ‘ইমরান শুরু থেকেই সাফল্যের জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছে। এবং ধারাবাহিক এ পরিশ্রমের কারণেই সে রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে সাফল্য পেয়েছে।’ ইন্টারনেট। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ