ঢাকা, শনিবার 28 July 2018,১৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মোস্তফা রশিদী সুজার ইন্তিকাল

খুলনা অফিস : খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক হুইপ বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ এস.এম মোস্তফা রশিদী সুজা এমপি (৬৮) ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। বৃহস্পতিবার তিনি বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা ৫ মিনিটে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। মৃত্যুর সময় তাঁর স্ত্রী খোদেজা রশিদী এবং ছোট মেয়ে তুর্কি পাশে ছিলেন।

বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী এস.এম মোস্তফা রশিদী সুজা দীর্ঘদিন কিডনী রোগে ভুগছিলেন। সম্প্রতি শ্রমিক লীগ নেতা আলম হাওলাদারের দেয়া কিডনী প্রতিস্থাপনের পর সুস্থ হয়ে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরে আসেন। এরপর তাকে খুলনার শহীদ হাদিস পার্কে গণসংবর্ধণা দেয়া হয়। সম্প্রতি তিনি আবারো অসুস্থ হলে পুনরায় সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়। গত ২/৩ দিন ধরে তিনি বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁর শারীরিক অসুস্থতার খবর পেয়ে একমাত্র ছেলে এস.এম খালেদীন রশিদী সুকর্ন সিঙ্গাপুরে যাবার উদ্দেশ্যে বৃহস্পতিবার রাতেই খুলনা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। কিন্তু পথিমধ্যেই পিতার মৃত্যুর খবর পান। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টায় তিনি সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেন বলে পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে। সেখান থেকে কবে নাগাদ লাশ দেশে আসবে সেটি সুকর্ন সিঙ্গাপুরে যাওয়ার পরই নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানান।

এস.এম মোস্তফা রশিদী সুজা ১৯৯১ সালে খুলনা-৪ আসন থেকে প্রথমবারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে তিনি একই আসন থেকে দ্বিতীয় বারের মত নির্বাচিত হয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালের নির্বাচনেও তিনি একই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতির মধ্য দিয়েই তার রাজনৈতিক জীবন শুরু হয়। এরপর আবাহনী ক্রীড়াচক্রের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি খুলনা পৌরসভার কমিশনার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া আমৃত্য তিনি আবাহনী ক্রীড়া চক্র ও খুলনা নাট্য নিকেতনের সভাপতিসহ বিভিন্ন ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

এদিকে এসএম মোস্তফা রশিদী সুজার ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কেসিসির নবনির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, সংসদ সদস্য ও বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র শেখ হেলাল উদ্দিন, আওযামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য এস.এম কামাল হোসেন, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান এমপি, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. মোজাম্মেল হোসেন এমপি, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামরুজ্জামান টুকু, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, খুলনা মহানগরী আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, নায়েবে আমীর মাস্টার শফিকুল আলম, সেক্রেটারি অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান, সহকারী সেক্রেটারি এডভোকেট শাহ আলম, এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন হেলাল, খান গোলাম রসুল, উত্তর জেলা আমীর মাওলানা এমরান হুসাইন ও সেক্রেটারি মুন্সি মিজানুর রহমান। খুলনা বিভাগীয় শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি মাস্টার শফিকুল আলম ও সেক্রেটারি অধ্যাপক আল ফিদা, মহানগরী সভাপতি খান গোলাম রসুল ও মাহফুজুর রহমান, খুলনা মহানগরীর পাঁচ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে এডভোকেট সাইফুল ইসলাম, শেখ সৈয়দ আলী, একেএম সানাউল্লাহ নান্নু, সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, শেখ আবিদ হোসেন, মনিরুল ইসলাম বাশার, ফকির সাইফুল ইসলাম, তসলিম আহমেদ আশা, শহীদুল ইসলাম বন্দ ও আনিসুর রহমান, খুলনা মহানগরী ছাত্রশিবির সভাপতি হাবিবুর রহমান ও সেক্রেটারি সাদ্দাম হোসেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ