ঢাকা, রোববার 29 July 2018, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৫ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বল টেম্পারিংয়ের ভিডিও ‘এডিটেড’ ছিল : হ্যান্ডসকম্ব

স্পোর্টস ডেস্ক: গত মার্চে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম বল টেম্পারিংয়ের দৃষ্টান্তস্থাপন করেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। এহেন কা-ে প্রত্যক্ষ জড়িত থাকার অভিযোগে শাস্তি হয়েছে তিন ক্রিকেটার স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটের, নিজ থেকে পদত্যাগ করেছেন কোচ ড্যারেন লেহম্যান। এই তিনজনের বাইরেও বল টেম্পারিংয়ের এই ঘটনায় পরোক্ষ সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান পিটার হ্যান্ডসকম্বের।

 ড্রেসিংরুমের একটি ভিডিও ক্লিপ থেকে হ্যান্ডসকম্বের প্রতি সন্দেহের তীর দৃঢ় হয় আরো বেশি। এতোদিন এই বিষয়ে চুপ থাকলেও, অবশেষে মুখ খুলেছেন ২৭ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান।তার মতে যে ভিডিও ঘিরে তোলপাড় হয়েছে তার বিরুদ্ধে সেটি সম্পূর্ণ মিডিয়ার কারসাজি ও ‘এডিটেড’। 

ব্যানক্রফটের সাথেও তেমন কোন আলোচনা হয়নি বরং বরাবরের মতোই নিত্যনৈমিত্তিক কথাবার্তা হয়েছিল বলে জানান হ্যান্ডসকম্ব। সংবাদ মাধ্যমে এ বিষয়ে বলতে গিয়ে হ্যান্ডসকম্ব বলেন, ‘সেই ভিডিও ফুটেজটা আমি খুব উপভোগ করেছি, কেননা এটি দেখেই বুঝতে পেরেছি মিডিয়া কতোটা ‘এডিট’ করেছিল ভিডিওটা। ভিডিওতে দেখা গেল আমি ওয়াকি-টকিতে কথা বলছি তারপর ব্যানক্রফটের দিকে দৌড়ে যাচ্ছি।

 কিন্তু আসল ঘটনা হচ্ছে আমি ওয়াকি-টকিতে কথা বলছিলাম ঠিকই কিন্তু তখনই আমি মাঠে যাইনি। প্রায় ২৫-৩০ মিনিট পর একজন খেলোয়াড় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে উপরে এলে আমাকে নামতে হয়েছিল।’ হ্যান্ডসকম্ব আরো বলেন, ‘আমি তখন গিয়ে ব্যানক্রফটের পাশেই ক্যাচিং পজিশনে দাঁড়াই। সাধারণত আমরা দুজন এই পজিশনেই ফিল্ডিং করি। হয়তো উইকেটের সামনে বা পেছনে। তবে একসাথেই দাঁড়াই। এজন্যই আমি ওর পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। টুকটাক মজাও করছিলাম দুজন। এর বাইরে কিছুই ছিলো না। আমার বিরুদ্ধে যেসব কথা ছড়ানো হয়েছে তার কোনটাই সত্য নয়।’

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ