ঢাকা, সোমবার 30 July 2018, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৬ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ওয়ানডে সিরিজ জয় এশিয়া কাপে কাজে দেবে : মাশরাফি

স্পোর্টস রিপোর্টার : শেষ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে দুই বছর পর ওয়ানডে সিরিজ জয় করেছে বাংলাদেশ। এই জয়কে এশিয়া কাপে আত্মবিশ্বাসের রসদ হিসেবে দেখছেন ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। সিরিজ জয়ের পর মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের এই জয়টা প্রয়োজন ছিল। আপনি যদি শেষ কয়েক মাসের ফলাফল বিবেচনা করেন, তাহলে এই জয়ের জন্যে আমরা মরিয়া ছিলাম। এই সিরিজ জয় এশিয়া কাপে আমাদের  প্রেরণা হিসেবে কাজে দেবে।’ সেন্ট কিটসে বাংলাদেশের জয়টা ছিল ১৮ রানের। পুরো ম্যাচে দলের পারফরম্যান্সের প্রশংসা করেছেন মাশরাফি। তিনি বলেন,‘ক্রিকেট সব সময়ই মনস্তাত্ত্বিক খেলা। আমার মনে হয় ছেলেরা এই ম্যাচে অতি মাত্রায় পেশাদার ছিল। ওরা সবাই ভালোর ছোঁয়াতে ছিল।’ সিরিজ জিতলেও ভুল গুলো পুরোপুরি মুছে ফেলতে পারছেন না মাশরাফি। তিনি মনে করেন এই জয় কোনওভাবেই দলের খাদগুলো লুকাতে পারবে না, ‘আমার মনে হয় না সিরিজ জয়ই সব কিছু। কারণ আমাদের অনেক জায়গা আছে যেগুলো নিয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের ফিল্ডিং নিয়ে বেশি মনোযোগী হতে হবে।’ ৩০১ রানের বিশাল স্কোর করতে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন তামিম। সঙ্গী হয়ে স্কোর বোর্ড সমৃদ্ধ করেছেন সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ ও মাশরাফি। সিনিয়ররা ভূমিকা রাখলেও জুনিয়রদের আরও দায়িত্ব নেওয়ার পক্ষে মাশরাফি। তিনি বলেন ,‘তামিম-সাকিব ও মুশফিক সবাই ভালো ছিল। জুনিয়রদের এখন এগিয়ে আসতে হবে।’ বাকিরা যেখানে নড়বড়ে পরিস্থিতি সামলাতে ব্যর্থ ছিল উল্টো দিকে পেসার রুবেল হোসেন ছিলেন ব্যতিক্রম। পুরো পরিস্থিতি সামলে গেইলকে বিদায় দিয়ে খেলায় ফেরান বাংলাদেশকে। সেই রুবেলকে কৃতিত্ব দিলেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় রুবেল দারুণ কাজ করেছে। ওই সময় গেইলকে সরানো গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ সে রানের চাকা সচল রাখছিল।’ মাশরাফির নেতৃত্বে ৯ বছর পর বিদেশের মাটিতে সিরিজ জয়ের উৎসবে মেতেছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতে মাশরাফি না খেললেও সতীর্থদের জন্য শুভকামনা জানাতে ভোলেননি। তার বিশ্বাস ওয়ানডে সিরিজ থেকে পাওয়া আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে টি-টোয়েন্টিতে ভালো করবে বাংলাদেশ। তিনি বলেন, ‘উইন্ডিজ টি-টোয়েন্টিতে অনেক ভালো দল। তবে এই ফরম্যাটে যে কোন কিছুই হতে পারে। আশা করি ছেলেরা শুরুটা ভালো করবে। প্রথম ম্যাচটা ভালো করতে পারলে, পুরো সিরিজের ফায়দা নিতে পারবে বাংলাদেশ। আশা করি এই সংস্করণেও তারা ভালো করবে।’ মাশরাফির এত আত্মবিশ্বাসী হওয়ার যথেষ্ট কারণও আছে। দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের সবাই আছে দারুণ ফর্মে। যদিও মাশরাফি মনে করেন তরুণদের আরও ভালো পারফরম্যান্স করতে হবে, ‘ছেলেরা এখন ভালো ফর্মে আছে। বিশেষ করে তামিম, সাকিব, মুশফিক ও রিয়াদ, সবাই ভালো খেলেছে। এখন তরুণদের একটু একটু করে এগিয়ে আসতে হবে। পুরো সিরিজ জুড়ে বোলাররা ভালো করেছে। আমি মনে করি টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে দল হিসেবে বাংলাদেশ নিজেদের আরও প্রস্তুত করবে।’ গায়ানায় প্রথম ওয়ানডেতে ৪৮ রানের জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও জয়ের দ্বারপ্রান্তে ছিল সফরকারীরা। কিন্তু দিবারাত্রির ম্যাচে শেষ দিকের নাটকীয়তায় হেরে যায় বাংলাদেশ। তবে এদিনের জয়ে নিজেদের পারফরম্যান্সকে‘পশাদার পারফরম্যান্স’ হিসেবে স্বীকৃতি দিলেন মাশরাফী। মাশরাফি বলেন,‘ছেলেরা পেশাদার পারফরম্যান্সদেখাতে পেরেছে।’ জয়ের পর পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে মাশরাফী বলেছেন, ‘ক্রিকেট মেন্টাল গেম। আমরা দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ হেরেছিলাম। যদিও ৯৯ ওভার পর্যন্ত ম্যাচ আমাদের হাতে ছিল। কিন্তু এ ম্যাচে আমি বলবো ছেলেরা পেশাদার পারফরম্যান্স দেখাতে পেরেছে। ছেলেরা দারুণ ছন্দে আছে।’ সামনে টি- টোয়েয়ন্টি সিরিজ। মাশরাফী যে ফরম্যাট থেকে অবসর নেওয়ায় থাকবেন না সেখানে। তবে দলকে আত্মবিশ্বাস নিয়ে শুরু করার বার্তা দিয়ে গেলেন ওয়ানডে অধিনায়ক, ‘এখন টি-টুয়েন্টিতে আমাদের আত্মবিশ্বাস নিয়ে শুরু করতে হবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজ কখনোই সহজ নয়।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ