ঢাকা, সোমবার 30 July 2018, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৬ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ১ হাজার ৬শ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

রংপুর অফিস : নতুন কোন কর আরোপ ছাড়াই রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের জন্য ১ হাজার  ৬ শ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে।
গতকাল রোববার দুপুরে রসিক মিলনায়তনে আয়োজিত এক এক সংবাদ সন্মেলনে মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা এ বাজেট ঘোষনা করেন। বাজেটে রাজস্ব আয় দেখানো হয়েছে প্রায় ৫২ কোটি ৬০ লাখ ৫৯ হাজার  টাকা। সরকারী সহায়তা ও  বিদেশী আনুদান থেকে আয় দেখানো হয়েছে  ১ হাজার ৫শ কোটি ৭৩ লাখ ৯৪ হাজার টাকা। ব্যায় দেখানো হয়েছে ১ হাজার ৬ শ কোটি টাকা। বাজেটে উদ্বৃত্ত আয় দেখানো হয়েছে ২৩ কোটি ৫৮ লাখ ১৩ হাজার  টাকা । বাজেটে শ্যামা সুন্দরী ও কেডি খাল উন্নয়নের জন্য ১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছে। সংবাদ সম্মেলন মেয়র রংপুকে একটি পরিকল্পিত গ্রীণ পরিবেশ বান্ধব ও যানজটমুক্ত আধুনিক নগরী হিসেবে রংপুর সিটি কর্পোরেশনকে ঘোষনার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। এ লক্ষ্যে রংপুর নগরীকে ৪ টি জোনে ভাগ করে নাগরিক সেবা জনগনের দোড় গোড়ায় পৌঁছে দেয়ার তাঁর পরিকল্পনার কথা জানান। সেই সাথে নগরীর ফুটপাত দিয়ে যাতে পথচারীরা নির্বিঘেœ চলাচল করতে পারে সেই পদক্ষেপ নেয়ার ঘোষনা দেন। বাজেট ঘোষনাকালে মেয়র বলেন, বিগত মেয়রের আমলে অবকাঠামো উন্নয়নে ঠিকাদারদের বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য অগ্রিম টাকা দেয়া হয়েছে। এখন ব্যাংক গ্যারান্টির কারণে তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত করতে পারছি না। অনেকেই অগ্রীম টাকা নিয়ে চলে গেছে কাজ করছে না। কাজ শুরু করলেও শেষ করছে না। দুটি ব্রীজ ভেঙ্গে অসমাপ্ত রেখেছে। তিনি বলেন, ১৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রাখা হয়েছে। এরমধ্যে ১ কোটি টাকা কিছুদিন আগে আমরা পরিশোধ করেছি।
হাইকোর্ট থেকে চাকরি বহাল করে নিয়ে আসায় অনেককেই তাদের চারবছরের বেতন ভাতা দিতে হচ্ছে। সব মিলে একটি ভঙ্গুর সিটি করপোরেশন পেয়েছি আমি। সব কিছুকে ঠিকঠাক করে একটি মাস্টারপ্লানের মাধ্যমে বাস্তবসম্মত পরিকল্পিত নগরী প্রতিষ্ঠা করতে আমরা কাজ করছি। এজন্য মিডিয়ার সহযোগিতা কামনা করেন। রসিক এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আখতার হোসেন আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন নির্বাহী প্রকৌশলী আজম আলী সহ কাউন্সিলর ও কর্মকর্তা বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ