ঢাকা, মঙ্গলবার 31 July 2018, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অসভ্য দেশ হতে দেয়া যাবে না -ড. কামাল

গতকাল সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে আমরা সাধারণ জনগণ সংগঠনের উদ্যোগে ৬ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ড. কামাল হোসেন -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার: গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, এই দেশকে অসভ্য দেশ হতে দেয়া যাবে না। হাতুরি ও লাঠি দিয়ে ছাত্রছাত্রীসহ দেশের মানুষের ওপর যারা আক্রমণ চালায় তাদের অবিলম্বে দেশ থেকে বিলুপ্ত করতে হবে। মানুষ শক্ত হাতে মোকাবেলা করলে অন্যায়কারীরা পার পাবে না।
গতকাল সোমবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনী মিলনায়তনে ‘আমরা সাধারণ জনগণ’-এর ব্যানারে ‘দ্রব্যমূল্য হ্রাসকরণ, দেশে সু-শাসন প্রতিষ্ঠা, বিচার বিভাগকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেয়া, জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিতকরণ, মানবাধিকার নিশ্চিতকরণ ও যানজট নিরসন করা’ এই ৬ দফা দাবিতে আয়োজিত আলোচনা সভায় ড. কামাল হোসেন এসব কথা বলেন। দেশের কথা ফিরোজা বেগমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- ন্যাশনাল কংগ্রেস বাংলাদেশের চেয়ারম্যান কাজী ছাবের আহাম্মদ (ছাব্বির), বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টির (একাংশের) চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) মহাসচিব কাজী আমান উল্যাহ মাহফুজ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) কার্যনির্বাহী সদস্য ডি এম আমিরুল ইসলাম অমর প্রমুখ।
ড. কামাল বলেন, জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে দেশে অন্যায় শাসন চলতে পারবে না। যারা স্বৈরাচার তারা জনগণের নয়, নিজেদের স্বার্থে ক্ষমতার অপব্যবহার করে। তারা দেশের সংবিধান মানে না। নিজেদের ইচ্ছামত দেশ চালায়। এভাবে দেশ চলতে পারে না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে কোনো শাসকই অন্যায়ভাবে বেশিদিন ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে না। যেমন আয়ুব খান টিকতে পারেনি। আয়ুব বলেছিলেন- কিসের দাবি? আমি অস্ত্রের মুখে জবাব দিব। পরে জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে আয়ুব খানের পতন ঘটিয়েছে। অন্যায় করে এই সরকারও পার পাবে না।
ড. কামাল হোসেন বলেন, সংবিধানে স্পষ্টভাবে লেখা আছে দেশের মালিক জনগণ। ১৬ কোটি মানুষকে মেরে দমানো যাবে না। এক সময় জনগণ প্রতিবাদ গড়ে তুলবেই। তখন আর অপরাধীরা পার পাবে না।
কোটা সংস্কারকারী ছাত্র-ছাত্রীদের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ড. কামাল বলেন, হাতুরি দিয়ে যেভাবে পা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে তা মহা অন্যায়। যারা এমন করতে পারে তারা মানুষ না, তারা পশু। এটা পশুদের দেশ নয়, এটা মানুষের দেশ। এই দেশ পশুদের দেশ হতে পারে না। অসভ্য নয়, সভ্য দেশ গড়ার জন্যই দেশ স্বাধীন করেছিলাম। এই সভত্যার জন্য কি দেশ স্বাধীন করেছিলাম। সমাজকে রোগ মুক্ত করার জন্য জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন।
তিনি বলেন, যারা কোটা আন্দোলনকারীদের রাজাকার বলে তাদের চিকিৎসা করানো দরকার। আমরা চাই দেশে সুস্থ ও সভ্য মানুষ বসবাস করবে। কোনো পশু ও অসভ্য লোক দেশে থাকতে পারে না।
এই দেশ ব্যাপক সম্ভাবনার দেশ এমন মন্তব্য করে প্রবীণ এই নেতা বলেন, এদেশের মানুষ দেশপ্রেমিক, পরিশ্রমী, কৃষক ফসল ফলাচ্ছে, প্রবাসীরা দেশে টাকা এনে দেশকে উন্নয়ন করছে। সেই সম্ভাবনাময় দেশকে ধ্বংস হতে দেয়া যাবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ