ঢাকা, মঙ্গলবার 31 July 2018, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সিরাজদিখানে আনুষ্ঠানিকভাবে দীর্ঘ ১৫ বছরের দ্বন্দ্বের অবসান

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের রাজনগর ও আকবরনগর গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে চলে আসা দ্বন্দ্বের অবসান ঘটে। এ উপলক্ষে আয়োজিত দু’পক্ষের প্রীতিপূর্ণ সভায় বক্তৃতা করছে সভার সভাপতি মো. মোক্তার হোসেন

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) সংবাদদাতা: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের রাজনগর ও আকবরনগর গ্রামের অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে চলে আসা দ্বন্দ্বের আনুষ্ঠানিকভাবে অবসান ঘটানো হয়েছে। গত ২২ জুলাই উপজেলার রাজনগর দ্বীনিয়া মাদ্রাসা মাঠ প্রাঙ্গনে ওই এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যস্থতায় এবং  দুপক্ষের নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে এ দ্বন্দ্বের অবসান ঘটানো হয়। মোঃ মোক্তার হোসেনের সভাপতিত্বে  ও জামাল হোসেনের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিথ ছিলেন, রাজনগর গ্রামের দলনেতা সাবেক ফিরোজ মেম্বার এবং অপর পক্ষের দলনেতা বালুচর ৭নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোঃ আফজাল হোসেন।
এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন, কেওয়াজ আলী মাদবর, শাহাবুদ্দিন মাদবর, আলমাস মাদবর, শাহ জাহান মাদবর, করম আলী, আনোয়ার হোসেন, সিরাজুল ইসলাম (পাগলচান), ইউসুফ কাজী, ঈমান আলী, মোঃ জয়নালসহ ওই এলাকার সর্বস্তরের সাধারণ জনগণ।
উল্লেখ্য, রাজনগর ও আকবরনগর গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে চলে আসা টেটা বল্লম সংঘর্ষে ওই এলাকায় অশান্তি, ঘর বাড়ি ভাংচুর, লুটপাট, বসত ঘর পোড়ানো, মামলাসহ বিভিন্ন ক্ষয় ক্ষতির সম্মূখীন হতে হয়েছে ওই এলাকার জনসাধারণের। তাই এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সকলে মিলিত ভাবে দ্বন্দ্বের অবসান ঘটানো হয়।
এসময় মোঃ মোক্তার হোসেন দুই গ্রামের লোকদের উদ্দেশ্যে বলেন, এলাকায় বিরোধ থাকলে এলাকার ক্ষতি ছাড়া ভাল হয় না। সবচেয়ে বেশী সুবিধা পায় মাদক ব্যবসায়ীরা। সবচেয়ে বেশী মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারী এই এলাকায়। সকলের সহযোগীতায় এ এলাকা থেকে মাদক নির্মূল করবো। তিনি মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, মাদক ব্যবসা ছেড়ে ভাল কাজ করে চলার চেষ্টা করেন।
তাতে এলাকার যুবসমাজ ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা পাবে। আর যদি মাদক ব্যবসা না ছাড়েন প্রত্যেককেই ধরে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এতে যেই হোক তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। পরে উপস্থিত সকলে একাত্মতা প্রকাশ করে  হাতে হাত রেখে সংঘর্ষ ও মাদক নির্মূলের অঙ্গীকার করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ