ঢাকা,বুধবার 14 November 2018, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ফিলিস্তিনি শিশুদের মাথায় বোমা ফেলা উচিত: ইসরাইলি শিক্ষামন্ত্রী

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইসরাইলে ঘুড়ি পাঠানো ফিলিস্তিনি শিশুদের মাথায় বোমা ফেলা উচিত ইসরাইলি যুদ্ধবিমানের। সম্প্রতি এমন মন্তব্য করেছেন ইসরাইলের শিক্ষামন্ত্রী নাফতালি বেনেট। ইনেট নেট নিউজের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে মিডল ইস্ট মনিটর।

খবরে বলা হয়, অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের সাম্প্রতিক হামলা নিয়ে রোববার ইসরাইলের নিরাপত্তা পরিষদ এক বৈঠক করেছে। তাতে ইসরাইলে গাজা উপত্যকা থেকে ছোড়া জ্বলন্ত ঘুড়ি বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ইসরাইলি সীমান্তে জ্বলন্ত ঘুড়ি পাঠিয়ে হামলা চালিয়েছে গাজার বাসিন্দারা। এসব ঘুড়ির বেশিরভাগই ছুড়েছে শিশুরা।   

বৈঠকে বেনেট বলেন, আমাদের দিকে আকাশপথে হামলা চালায় এমন যে কাউকে আমরা গুলি কেন করে দেই না? 

বেনেট আরো বলেন, এই বিষয়ে কোন আইনী বাঁধা নেই। তাদের আশপাশে কেন গুলি ছুড়বো? সরাসরি তাদের উদ্দেশ্য করে কেন নয়? এরা সকল দিক দিয়ে সন্ত্রাসী।

বেনেটের মন্তব্যের জবাবে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর চিফ অফ স্টাফ গাডি আইজেনকত বলেন,  আমি বেলুন ও ঘুড়ি ছোড়া কিছু কিশোর ও শিশুদের ওপর গুলি ছোড়া ঠিক মনে করি না। 

তিনি বেনেটকে প্রশ্ন করেন, আপনি কি হিংসাত্মক বেলুন ও ঘুড়ি তৈরির জায়গাগুলোয় বিমান থেকে বোমা ফেলার প্রস্তাব রাখছেন?

আইজনকতের প্রশ্নের জবাবে বেনেট বলেন, ইসরাইলি সেনাবাহিনীর এটা করা উচিত। সেনাপ্রধান তখন বলেন, আমি আপনার সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করি। এটা আমার নৈতিক ও আভিযানিক অবস্থানের বিরুদ্ধে। 

উল্লেখ্য, ইসরাইল উদ্দেশ্য করে ছোড়া বেশিরভাগ জ্বলন্ত ঘুড়িই ছোড়া হয়েছে কয়েকদিন আগে হয়ে যাওয়া ‘গ্রেট মার্চ অফ রিটার্ন’ আন্দোলনের সময়। এসব ঘুড়ির বেশিরভাগই ছুড়েছে শিশুরা। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ