ঢাকা, বুধবার 1 August 2018, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মেয়র হজ্ব কাফেলা ট্যুরস্ এন্ড ট্রাভেলসের হজ্ব প্রশিক্ষণ সম্পন্ন

মেয়র হজ্ব কাফেলার প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানের দৃশ্য -সংগ্রাম

চট্টগ্রামের মেয়র হজ্ব কাফেলার হাজী সাহেবানদের এক প্রশিক্ষণ কর্মশালা ২১ জুলাই শনিবার বেলা ২.৩০ টায় জমিয়াতুল ফালাহ জাতীয় মসজিদের নীচ তলায় অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন সংস্থার নব-নির্বাচিত সভাপতি সাবেক মেয়র  মনজুরুল আলম। হজ্বের করণীয়ের উপর গুরুত্বপূর্ণ বয়ান করেন জমিয়াতুল ফালাহ জাতীয় মসজিদের খতিব বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা আবু তালেব, গরীবউল্লাহ শাহ মসজিদের খতিব ইসলামী গবেষক মাওলানা আনিসুজ্জামান, মাওলানা আবুল কাসেম আল-কাদেরী প্রমূখ।
সভায় আলেমে দ্বীনগণ বলেন, মোহমায়া ত্যাগ করে পরম করুণাময়ের নৈকট্য লাভের আশায় যারা নিজেকে পুরোপুরি সমর্পন করতে পেরেছে তারাই হজ্বের পূর্ণলাভ নিয়ে ঘরে ফিরতে পেরেছে। মেয়র হজ্ব কাফেলার হজ্ব যাত্রার পবিত্র মদিনা শরীফ দিয়ে শুরু করে হুজুর পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের দোয়া নিয়ে হজ্বের উদ্দেশ্যে মক্কা শরীফ যাত্রার মধ্যে এক মহান আধ্যাত্মিকতা রয়েছে। হজ্বের সকল করণীয় পরিপূর্ণ আদায় করাই হবে প্রতিটি হাজীর মূল লক্ষ্য। হজ্বের সময় দলীয় শৃঙ্খলা, নিয়মানুবর্তিতা, স্বাস্থ্য সচেতনতা সকলকেই কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।
 মেয়র হজ্ব কাফেলার নির্বাহী পরিচালক খোরশেদ আলম সুজন বলেন, স্বল্পমুল্যে সুশৃঙ্খলভাবে, সহজে হজ্বের করণীয় পালনে হাজীদের সেবাদানের জন্য চট্টগ্রামের প্রথম নির্বাচিত মেয়র এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী সম্পূর্ন অলাভজনক সেবামূলক প্রতিষ্ঠান মেয়র হজ্ব কাফেলা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। জন্মলগ্ন থেকে এই প্রতিষ্ঠান অনেক কষ্টকর চড়াই উৎরাই পার করে পচিঁশ বছরে পদার্পণ করেছে। আমাদের কিছু কিছু ব্যর্থতা থাকলেও সাফল্যের পাল্লা ভারী বলেই সৌদি রাজকীয় সরকার বার বার এই সংস্থাকে সম্মাননা প্রদান করেছে। যখন এই প্রতিষ্ঠান রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়েছিল সৌদি রাজকীয় সরকারসহ দেশবাসী আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিল। মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনেক কল্যাণকর কাজের অন্যতম এই হাজী সেবার প্রতিষ্ঠান। আমরা সকলের দোয়া চাই, সহযোগীতা চাই এই কল্যাণকর সংস্থার স্থায়ীত্বের জন্য।
সভাপতির ভাষণে মনজুরুল আলম বলেন, কোন অর্থনৈতিক উদ্দেশ্যে নয়, আল্লাহ ও রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের মেহমানদের খেদমতের জন্য এই কাফেলা চলমান আছে। যারা বিভিন্ন ভাবে সাহায্য, সহযোগীতা এবং উপদেশ দিয়ে মেয়র হজ্ব কাফেলাকে সাহায্য করেছেন তিনি তাদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান। বাংলাদেশ বিমানের কারণে হাজীদের অবস্থান সময় কিছুটা দীর্ঘায়িত হওয়ায় তিনি সকলের নিকট দুঃখ প্রকাশ করেন।
প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন হজ্ব কাফেলার পরিচালকদের মধ্যে মাহবুব আলম, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, আব্দুল কাদের,  শহিদুল ইসলাম,  সাজ্জাদ হোসেন, মুসা মিরদাদ, সংস্থার সি.ই.ও  একেএম নুরুল আনোয়ার প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ