ঢাকা, বুধবার 1 August 2018, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ভুয়া মেজর পরিচয়ে বিয়ের অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর মামলা

নাজিরপুর (পিরোজপুর) সংবাদদাতা : ভুয়া মেজর পরিচয়ে বিয়ে ও যৌতুকের জন্য গর্ভবতী স্ত্রীকে মারধর করে সন্তান প্রসবের অভিযোগে উপজেলার শেখমাটিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের চরখালী গ্রামের নাসির  শেখ (৩৫) কে  গত শনিবার রাতে থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে।  সে ওই গ্রামের আব্দুর রশিদ শেখের পুত্র। আর স্ত্রী নিপা আক্তারের বাড়ি ঢাকার  মিরপুরে। থানা পুলিশের অফিসার ইন চার্জ মো. হাবিবুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতের  স্ত্রী নিপা আক্তার (২৫) বাদী হয়ে গত ১১জুলাই স্বামীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলা ও স্ত্রী নিপার দেয়া তথ্য সূত্রে জানা গেছে, গত ৯ মাস আগে অভিযুক্ত নাসিরের সাথে ওই নিপার সাথে  ফেসবুকের মাধ্যমে মেজর পরিচয়ে প্রেম হয়। পরে গত ৪ জানুয়ারী তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর  স্ত্রী নিপা গর্ভবতী হয়ে পড়েন।  এর মধ্যে  স্বামী নাসির বিভিন্ন সময় যৌতুকের জন্য চাপ দিয়ে মোট ১০ লাখ টাকা আদায় করে। আবারও টাকা চাইলে ও দাবী করা টাকা না দিলে সে (স্বামী) স্ত্রীকে মারধর করে গ্রামের বাড়ি নাজিরপুরে চলে আসে। এ ঘটনার পর স্ত্রী নিপাও তার স্বামীর বাড়ি এসে জানতে পারে সে মেজর না বরং গরু ব্যবসায়ী এবং তার স্ত্রী ও ২টি পুত্র সন্তান রয়েছ। এ নিয়ে কথা কাটা-কাটি হলে নাসির তার গর্ভবতী স্ত্রী  নিপাকে বেদম মারধর করে। এতে অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসার নামে তার গর্ভের সন্তানও প্রসাব করানো হয় বলে নিপার অভিযোগ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ