ঢাকা, বৃহস্পতিবার 2 August 2018, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

তিন সিটিতে পুনঃনির্বাচন দিতে হবে -পীর সাহেব চরমোনাই

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট সিটি নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দিতে হবে। তিনি বলেন, ৩০ জুলাই তিন সিটিতে প্রকাশ্যে ভোট ডাকাতি, কেন্দ্র দখল, জাল ভোট প্রদান করে নির্বাচনের নামে জঘন্য কাজ করলো সরকার। যা বিশ^ মিডিয়াসহ দেশীয় সকল মিডিয়ায় গুরুত্ব পেয়েছে। এরপরও নির্বাচন কমিশনের নির্লজ্জ দালালী জাতিকে বিস্মিত করেছে। তিনি বলেন, তিন সিটির ফলাফল বাতিল করে নতুন করে নির্বাচন দিতে হবে। 
গতকাল বুধবার এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, খুলনা ও গাজীপুর সিটি নির্বাচনের চেয়েও তিন সিটি নির্বাচনে জঘন্য ভোট ডাকাতি হয়েছে। সরকারের শেষ মেয়াদে এসে এবং জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে এ ধরনের ভোট ডাকাতি দেশবাসিকে শঙ্কিত করেছে। বিশ্ববাসী অবাক বিস্ময়ে আওয়ামী লীগের বহিরাগত ক্যাডার ও প্রশাসনের নির্লজ্জতা প্রত্যক্ষ করেছে। দলীয় ক্যাডার ও প্রশাসনের ভোট তান্ডব প্রমাণ করেছে বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হতে পারে না, তা চূড়ান্তভাবে আবারো প্রমাণিত হলো। কাজেই দলনিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে এর কোন বিকল্প নেই। সরকার তিন সিটি নির্বাচন নিয়ে নতুন করে দেশে সঙ্কট সৃষ্টি করেছে। তিন সিটিতে নির্বাচনের নামে তামাশা করেছে এবং নির্বাচনের মাজাকে ভেঙ্গে দিয়েছে। নির্বাচন কমিশনের মতো একটি সাংবিধানিক পদে থেকে নির্বাচন কমিশনের নির্লজ্জ দালালী জাতির জন্য একটি কলঙ্কজনক অধ্যায়। অথর্ব নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ করা উচিত।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, জনগণের ভোটাধিকার রক্ষায় দেশবাসিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময় এসেছে। তিনি তিন সিটির ফলাফল বাতিলের দাবিতে অনুষ্ঠিতব্য শুক্রবার বাদ জুমআ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটের বিক্ষোভ মিছিল সফলের জন্য দলীয় নেতাকর্মীসহ সচেতন জনতার প্রতি আহ্বান জানান।
নৌপরিবহন মন্ত্রীর বক্তব্যের নিন্দা: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে যখন তাদের পরিবার শোকে মুহ্যমান, সে মুহুর্তে তিনি হাসি-তামাশা করে চরম উপহাস করেছেন। তিনি বলেন, প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘায়িত হচ্ছে, আর নৌমন্ত্রীর তুচ্ছতাচ্ছিল্য দেশবাসীকে চরম ব্যথিত ও মর্মাহত করেছে। মহাসচিব বলেন, যদি মানুষের দু:খ-কষ্ট বুঝেন না তিনি কিভাবে এ পদে বহাল থাকেন?  তিনি বলেন, অদক্ষ ও অযোগ্য ব্যক্কিদেরকে লাইসেন্স না দেয়ার আহ্বান জানান। এভাবে যাদের খামখেয়ালীর জন্য নিরীহ মানুষের জীবন বিলীন হচ্ছে। 
গতকাল বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। এতে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, যুব আন্দোলনের সভাপতি কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা নেছার উদ্দিন, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ