ঢাকা, বৃহস্পতিবার 2 August 2018, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খালেদা জিয়ার আপিল শুনানি ৮ আগস্ট পর্যন্ত মুলতবি

স্টাফ রিপোর্টার : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় পাঁচ বছরের দ-ের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার খালাস চেয়ে করা আপিল আবেদনের শুনানি আগামী ৮ আগস্ট পর্যন্ত মুলতবি করেছেন হাইকোর্ট। দুদকের আইনজীবী এডভোকেট খুরশীদ আলম খান এ তথ্য জানিয়েছেন।
গতকাল বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এই নিয়ে খালেদা জিয়ার আপিল আবেদনের ওপর ১১তম দিনের মতো শুনানি অনুষ্ঠিত হলো। শুনানি শেষে মামলার কার্যক্রম আগামী ৮ আগস্ট শুনানির জন্য পরর্বতী দিন ঠিক করেন।
আদালতে গতকাল খালেদার পক্ষে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী আব্দুর রেজাক খান ও এজে মোহাম্মদ আলী এবং দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম।
মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের পাঁচ মাসের মাথায় গত ১২ জুলাই হাইকোর্টে করা এ আপিলের ওপর শুনানি শুরু হয়। এই মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদ- ও অর্থদ- দিয়েছেন বিচারিক আদালত। এরপর থেকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন তিনি।
ওই সাজার বিরুদ্ধে আপিল করে জামিন আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১২ মার্চ হাইকোর্ট থেকে চারমাসের জামিন পান খালেদা, যা আপিল বিভাগে বহাল থাকে। ওই জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য করা এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১২ জুলাই থেকে ১৯ জুলাই, এরপর ২৬ জুলাই। এর পর ২৬ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত সর্বশেষ ৮ আগস্ট পযন্ত জামিনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। তবে, অন্য মামলা পরোয়ানা থাকায় তিনি কারামুক্তি পাননি।
গত ১২ মার্চ খালেদা জিয়ার চার মাসের জামিনের বিরুদ্ধে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করে। এরপর গত ১৬ মে তা বহাল রেখে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আপিল নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। পরে খালেদা জিয়া ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে হাইকোর্টে আপিল মামলার নিষ্পত্তিতে আপিল বিভাগের আদেশ পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে আবেদন করেন। ওই আবেদন মুলতবি রেখে আপিল বিভাগ বলেন, খালেদা জিয়ার করা আপিল শুনানি ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ না হলে সময়ের প্রার্থনা বিবেচনা করা হবে। এর পর ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয় আপিল নিষ্পত্তির জন্য।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ