ঢাকা, শুক্রবার 3 August 2018, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাংবাদিক মোয়াজ্জেম হোসেনের দাফন সম্পন্ন

গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বরে ইংরেজি দৈনিক ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেনের নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হয় -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার: দি ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক ও বাংলাদেশ ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এএইচএম মোয়াজ্জেম হোসেনের জানাযা নামায অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানী ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবে এই জানাযা নামায অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল বাদ জোহর তার লাশ আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হয়। সাংবাদিক মোয়াজ্জেম হোসেনের জানাযা নামাযে উপস্থিত ছিলেন ও শ্রদ্ধা জানান, বিএনপির নেতাদের মধ্যে ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সাংবাদিক মতিউর রহমান চৌধুরী, সাংবাদিক মাহফুজ আনাম, সাংবাদিক রুহুল আমীন গাজী, সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, সাংবাদিক সৈয়দ আবদাল আহমেদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। 

ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের অতিরিক্ত বার্তা সম্পাদক আনিসুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, এএইচএম মোয়াজ্জেম হোসেন দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুসের সংক্রমণজনিত রোগে ভুগছিলেন। বাংলাদেশ ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। 

এ ছাড়াও শিক্ষা জীবনে তিনি ফেনী পাইলট হাইস্কুল ও ফেনী কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন। পেশাগত জীবনে বাংলাদেশ অবজারভার দিয়ে সাংবাদিকতার যাত্রা শুরু করা মোয়াজ্জেম হোসেন নিউনেশন, ইউএনবি, দি ঢাকা কুরিয়ার ও ডেইলি স্টারে কাজ করেছেন। মোয়াজ্জেম হোসেনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। শোকবার্তায় অর্থমন্ত্রী বলেন, মোয়াজ্জেম হোসেন সংবাদ অঙ্গনে একজন বলিষ্ঠ কণ্ঠ। সত্য প্রকাশে তিনি ছিলেন সর্বদাই নির্ভীক। তার মৃত্যুতে এ অঙ্গনে যে ক্ষতি হলো তা পূরণ হবার নয়। মন্ত্রী তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও শোক প্রকাশ করেছেন। এ ছাড়া জাতীয় প্রেস ক্লাব ও ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ), বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন তার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ