ঢাকা, শুক্রবার 3 August 2018, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

“ঐক্যবদ্ধ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন”জোরদারের আহ্বান

চট্টগ্রাম ব্যুরো- চাকসু ভিপি ও উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ নাজিম উদ্দিন বলেছেন, দলের গণতন্ত্র ধ্বংস করার মাধ্যমে এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েমের জন্য দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করার মাধ্যমে বর্তমান সরকার দেশকে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিয়েছে। সদ্য সমাপ্ত বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেটে  ভোট ডাকাতির যে ন্যাক্কার জনক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তা বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশকে ধ্বংসের দিকে টেলে দিয়েছে। এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য দেশের আপোষহীন  দেশনেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে বেগবান করে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকারের অধীনে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে “ঐক্যবদ্ধ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন” জরুরী। কোটা সংস্কার আন্দোলনে ছাত্রদের গুমের মাধ্যমে হত্যা এবং সড়ক পথে স্কুল কলেজের ছাত্র/ছাত্রীদের যেভাবে হত্যা করা হচ্ছে দেশের জনগণ পর্যায়ক্রমে এই অনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সঠিক সময়ে জেগে উঠবে। তিনি বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টায় চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির উদ্যোগে সিটি কর্পোরেশনে ভোট ডাকাতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা বলেন। 

বক্তব্য রাখেন উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি এম এ হালিম, এ মোঃ ইসহাক কাদের চৌধুরী। জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এড. আবু তাহেরের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল, মোঃ সেলিম চেয়ারম্যান, মোঃ কামাল উদ্দিন, তোফাজ্জল আহমদ, মোঃ জাকের হোসেন, মোঃ আব্দুস শুক্কুর, মোঃ জামশেদুল রহমান, অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম লতিফী, মোঃ মাহবুব ছাফা, এস.এম. ফারুক, সৈয়দ মোস্তফা আলম মাসুম, নবাব মিয়া চেয়ারম্যান, জয়নাল আবেদীন দুলাল, রিপন তালুকদার, সহ চট্টগ্রাম উত্তর জেলার বিএনপির আওতাধীন উপজেলা, পৌরসভা, বিএনপির ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। 

বিএনপি নেতা এম.এ হালিম বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকার সিটি নির্বাচন দখলের মাধ্যমে আবারও ৫ই জানুয়ারির মত একটি ভোটার বিহীন নির্বাচন করার জন্য দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলার সাজা দিয়ে বাংলাদেশকে বাক-স্বাধীনতা শূন্যকরে আরেকটি পাতানো নির্বাচনের পরিকল্পনার মাধ্যমে ডিজিটাল বাকশাল কায়েম কারার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বিএনপি নেতা ইসহাক কাদের চৌধুরী বলেন, ফ্যাসিষ্ট সরকারের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ঐক্যবদ্ধভাবে আগামী দিনে বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে জাতীয়তাবাদী সকল শক্তিকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন এবং নির্বাচনের জন্য সর্বাত্বক প্রস্তুতি গ্রহণের আহ্বান জানান। যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল বলেন, অনতি বিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যপক মোঃ আসলাম চৌধুরী এফসিএ নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন এবং জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র বাংলাদেশের জনগণ গণ আন্দোলনের মাধ্যমে রুখে দাঁড়ানোর জন্য আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ