ঢাকা, শুক্রবার 3 August 2018, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সরকার বেপরোয়া বলে গাড়িচালকরাও বেপরোয়া-  মোশাররফ

স্টাফ রিপোর্টার: সড়ক গাড়িচালকদের বেপরোয়া আচরণের জন্য সরকারকেই দায়ী করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, দেশে ‘নির্বাচিত সরকার নেই’ বলে অরাজক পরিস্থিতি চলছে। গুম’ হওয়া নেতা-কর্মীদের পরিবারের সদস্যদের আর্থিক সহযোগিতা প্রদান উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘অপর্ণ বাংলাদেশ’ এর উদ্যোগে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন খন্দকার মোশাররফ।

সংগঠনের সভানেত্রী বীথিকা বিনতে হোসাইনের সভাপতিত্বে সৈয়দ সোহেল ও কাজী জিয়াউদ্দিন বাসেদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিএনপি নেতা তাহসীনা রুশদির লুনা, শিরিন সুলতানা, কেন্দ্রীয় নেতা আরিফা জেসমিন নাহিন, রুখসানা খাতুন মিতুয়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের ওয়াহিদ বিন ইমতিয়াজ বকুল, কামরুজ্জামান বিপ¬ব, ছাত্র দলের মাসুকুল ইসলাম রাজীব, সৈয়দ মাহমুদ বক্তব্য রাখেন।

মোশাররফ বলেন, “এক অরাজকতার মধ্যে দেশ চলছে। কোনো নিয়ম-কানুন কেউ মানছে না। “এটা কেন হচ্ছে? কারণ জনগণের সরকার নেই। সরকার যখন অবৈধ, তারা যখন গায়ের জোরে আছে, তখন ট্রাক বা বাস ড্রাইভার অবৈধ লাইসেন্স দিয়ে গাড়ি চালাবে, এটাই তো স্বাভাবিক। সরকার যদি বেপরোয়া হয়, গাড়িচালকরা বেপরোয়া হবে না কেন?”

নৌমন্ত্রী ও পরিবহন শ্রমিক নেতা শাজাহান খানের সমালোচনা করে মোশাররফ বলেন, “ঘাতক ড্রাইভার যখন দুই শিক্ষার্থীকে হত্যা করল, তখন সারা জাতি শোকে মোহ্যমান, সেখানে পরিবহন শ্রমিক নেতা যিনি মন্ত্রী শাজাহান খান অট্টহাসি দিলেন। এই হাসি প্রমাণ করে তারা কত নৃশংস, মানুষের পর্যায়ে নেই। “ ছেলে- মেয়েরা তার ( নৌমন্ত্রী) পদত্যাগ দাবি করেছে, সরকারের কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই। কারণ এই সরকার তো নিজেরা স্বৈরাচার, এই সরকারের প্রধানই তো বেপরোয়া। অতএব বেপরোয়া মন্ত্রীকে কেন পদত্যাগ করাবে। তাই আজকে সময় এসেছে সরকারের পদত্যাগ। তারা বেআইনি।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ