ঢাকা, রোববার 18 November 2018, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

রাজধানীতে আজও যানবাহন সংকট, ভোগান্তি চরমে

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

নিরাপদ সড়কের দাবিতে গত কয়েকদিনের ছাত্র বিক্ষোভের জের ধরে এবার ‌‌অঘোষিত ধর্মঘট ডেকে পরিবহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন দেশজুড়ে সাধারণ মানুষ।   

শিক্ষার্থীরা ঘরে ফিরলেও শনিবারও (০৪ আগস্ট) রাজধানীর বিভিন্ন রুটে গণপরিবহন চলাচল করছে না। এমনকি ঢাকা ছাড়ছে না দেশের বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী বাস সার্ভিস। 

রাজধানীর অভ্যন্তরীণ রুটগুলোতে আজও যাত্রীবাহী বাস নেই বললেই চলে। কেবল বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরশেনের (বিআরটিসি) কয়েকটি বাস চলছে, যা প্রয়োজনের তুলনায় অত্যন্ত অপ্রতুল। 

আজ শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এমন চিত্র দেখা গেছে।

সড়কে রিকশা, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস চলাচল করছে।

বিভিন্ন গন্তব্যগামী শত শত মানুষ রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছেন বা হাঁটছেন। 

রোকেয়া সরণি, মিরপুর রোড, সাতমসজিদ রোড, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, মানিক মিয়া এভিনিউ, বাড্ডা প্রগতি সরণি, এলিফ্যান্ট রোডে এমন দৃশ্য দেখা গেছে। 

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর কুর্মিটোলার বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাসের চাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহত হয়। এ ছাড়া আহত হয় বেশ কয়েকজন। নিহত শিক্ষার্থীরা হলো শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম রাজীব। 

এ ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তায় বিক্ষোভে ফেটে পড়ে শিক্ষার্থীরা। এরপর থেকে ঢাকার অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোয় বাস চলাচল একেবারেই কমে যায়। এমনকি আন্তজেলা বাস চলাচলও বন্ধ হয়ে যায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ