ঢাকা, রোববার 5 August 2018, ২১ শ্রাবণ ১৪২৫, ২২ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বাগমারায় তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন

বাগমারা (রাজশাহী) সংবাদদাতা : রাজশাহীর বাগমারায় তিনদিন ব্যাপী ফলদ বৃক্ষ মেলার শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার স্থানীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার শুভ উদ্বোধন করেন। সকাল ১১ টার দিকে ফিতা কেটে শুভ ফলদ বৃক্ষ মেলার শুভ উদ্বোধন করে উপজেলা হলরুমে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিউল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাজিবুর রহমান। বিশেষ অতিথির হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভবানীগঞ্জ পৌর সভার মেয়র আব্দুল মালেক ম-ল, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সাইদ আব্দুল্লাহ মোস্তাফিন প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকৌশলী সানোয়ার হোসেন, বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকের বাগমারা জোনের প্রকৌশলী রেজাউল করিম, উপজেলা উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা শামসুল হক, সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান, এসএনভি’র উপজেলা সমন্বয়কারী সমীর রায় ও উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। পরে অতিথিবৃন্দ বৃক্ষ মেলার ফলদ, বনজ ও ওষুধী গাছের ২০টি স্টল ঘুরে দেখেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি উপজেলার ৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০ জন শিক্ষার্থীকে ১০টি করে ফলদ গাছের চারা রোপণের জন্য প্রদান করা হয়।
নারীসহ ৫ জন আহত
রাজশাহীর বাগমারায় প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ ৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তিন জনকে স্থানীয় বাগমারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেছে। আহতরা হলেন গনিপুর গ্রামের এমাজ উদ্দীনের ছেলে আলাউদ্দীন বাবুল (৩৫), ইসরাফিল হোসেন (২৮) ও মনির উদ্দীন (৪৮)।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার গনিপুর গ্রামের মনির উদ্দীনের খড়ের পালা অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে প্রতিবেশী এমাজ উদ্দীনের শয়নঘরের মাটির দেয়ালের সাথে লেগে যায়। বৃষ্টির পানির কারণে মাটির দেয়ালের দুইটি শয়নঘর পড়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে সকালে এমাজ উদ্দীনের ছেলে আলাউদ্দীন বাবুল মনির উদ্দীনকে জানালে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা বাধে। এক পর্যায়ে মনির উদ্দীনের ছেলে উজ্জল হোসেন, স্ত্রী পারুল বিবি দেশীয় ধারালো অস্ত্র হাসুয়া, দা নিয়ে এমাজ উদ্দীনের ছেলেদের উপর হামলা চালায়। তাদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আলাউদ্দীন বাবুল রক্তাক্ত জখম হয়। বাবুলকে উদ্ধারে এগিয়ে গেলে তার ছোট ভাই ইসরাফিল হোসেন আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বাগমারা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। ওই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে আহত ইসরাফিল হোসেন জানান।
এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ বলেন, বিষয়টি তিনি জানেন না। কেউ অভিযোগ করলে তদন্ত করে প্রয়োনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ