ঢাকা, রোববার 5 August 2018, ২১ শ্রাবণ ১৪২৫, ২২ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পরিত্যক্ত ভবনে চলছে ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস

শাহজাদপুর : শাহজাদপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে ক্লাস চলছে

এম,এ,জাফর লিটন,শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) থেকে : শাহজাদপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের পরিত্যক্ত ভবনের ক্লাস রুমে ঝুঁকি নিয়েই চলছে ক্লাস ও পরীক্ষার কার্যক্রম। গত কয়েক বছর পূর্বে এটিকে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন হিসেবে চিহ্নিত করে পরিত্যক্ত ভবন ঘোষণা দেওয়ার পরেও কর্তৃপক্ষ ক্লাস কার্যক্রম অব্যাহত রাখায় বিষ্ময় প্রকাশ করেছে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীগণ। ফলে আতঙ্ক উৎকন্ঠা নিয়েই শিক্ষার্থীরা ক্লাস করছে বাধ্য হয়েই। ১৯৬৯ সালে স্থাপিত এই কলেজটির উত্তর ও পূর্ব পার্শ্বের ভবন এখন জরাজীর্ণ। ছাদের ঢালাই খসে পরায় শ্রেণী হিসেবে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পরেছে। তারপরেও ছাদের বিভিন্ন অংশে ফাটল ঢালাই খসে রড বের হয়ে যাওয়ায় যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। বর্তমানে শাহজাদপুর সরকারি কলেজের উত্তর পার্শের ও পূর্ব পার্শ্বের ভবন দুটিই ক্লাস কার্যক্রম পরিচালনা করার অনুপযোগী । কারণ বেশিরভাগ কক্ষসমূহের অবস্থা এখন জরাজীর্ণ। 
উপজেলার একমাত্র এই সরকারি কলেজটির শ্রেণীকক্ষের বেহাল দশা সত্যিই দুঃখজনক। এখানে ক্লাস কার্যক্রম ছাড়াও জে,এস,সি এস,এস,সি ও এইচ,এস,সি ও স্নাতক পরীক্ষার কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে কক্ষগুলি পরিত্যক্ত ও জরাজীর্ন থাকলেও সংস্কার অথবা ভবন ভেঙ্গে নতুন ভবন নির্মাণের উদ্দ্যোগ লক্ষ করা যাচ্ছেনা। যেন দেখার মত কেউ নেই। তাই কলেজের শিক্ষার্থীরা অনতিবিলম্ভে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন ভেঙ্গে নতুন ভবন   নির্মানের জোর দাবী জানিয়েছেন। কবে নাগাদ ঝুকিপূর্ণ ভবন সংস্কার কিম্বা ভেঙ্গে ফেলা হবে তা জানা নেই কারো। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অধ্যাপক জানান, কি কারণে দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত ভবনে ক্লাস চলছে তা রহস্যজনক। একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য লজ্জাজনক।
উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কেন বিষয়টি আমলে নিচ্ছেনা তা বোধগম্য নয়। এদিকে অনার্স ক্লাসের কার্যক্রম নবনির্মিত ড. মযহারুল ইসলাম বিজ্ঞান ভবনেই হচ্ছে। অবকাঠামোগত দিক থেকে সরকারি কলেজের এমন সমস্যা মেনে নিতে পারছেননা শিক্ষার্থীরা। তাই শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দাবী পরিত্যক্ত ভবনে ক্লাস কার্যক্রম বাদ রেখে বিকল্প ব্যবস্থা করা হোক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ