ঢাকা, সোমবার 6 August 2018, ২২ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৩ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনেই সরকার প্যারালাইজড হয়ে গেছে -ব্যারিস্টার মওদুদ

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে সরকার প্যারালাইজড হয়ে গেছে। তিনি বলেন, দমন করার কৌশল নিয়েও শিক্ষার্থীদের মনের ক্ষোভ যাবে না।  তাদের ঘরে ফিরিয়ে দিতে পারবেন, তাদের ওপর মামলা করতে পারবেন কিন্তু তাদের মনের ক্ষোভ তো দূর করতে পারবেন না। গতকাল রোববার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়া আদর্শ একাডেমি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
মওদুদ আহমদ বলেন, এই যে সরকারের ব্যভিচার, কুশাসন, দুঃশাসনের প্রতি সাধারণ মানুষের যে ক্ষোভ আছে, সেটাও একটি সময় আসবে যখন বিস্ফোরিত হবে। আমরা কি কেউ জানতাম যে এ দেশে কোটা আন্দোলন হবে? আমরা কি সপ্তাহখানেক আগেও জানতাম যে এই আন্দোলনে সরকার প্যারালাইজড হয়ে যাবে? তারা সরকারকে প্যারালাইজড করে দিয়েছে। সরকারের কাছে এটার কোনও উত্তর নেই, এই কারণে তারা কৌশল গ্রহণ করছে। এটাকে দমন করার কৌশল গ্রহণ করছে।
দমন করার কৌশল নিয়েও শিক্ষার্থীদের মনের ক্ষোভ যাবে না দাবি করে বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, তাদের মনের পুঞ্জীভূত ক্ষোভতো যাবে না। তাদের ঘরে ফিরিয়ে দিতে পারবেন, তাদের ওপর মামলা করতে পারবেন কিন্তু তাদের মনের ক্ষোভ তো দূর করতে পারবেন না। কারণ, এভাবে এটা করা সম্ভবপর নয়। সরকারের উচিত ছিল একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়া। এরা কখনও সেটা করে না। মুখে এক কথা বলে, করে আরেক কাজ। আমি মনে করি, বর্তমান প্রেক্ষাপটে এই সরকারের অবিলম্বে পদত্যাগ করে উচিত। অবিলম্বে নির্বাচনের দাবি জানাই।  দেশের মানুষের আস্থা এই সরকারের ওপর নেই দাবি করে মওদুদ আহমদ বলেন, এই কোমলমতি শিক্ষার্থীরা তো সরকারকে অচল করে দিয়েছে। আমরা তো এখনও কোনও কর্মসূচি দেইনি। তার আগেই তো এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
এই ঘটনার মধ্যে দিয়ে আরেকটি জিনিস এক্সপোজ হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা এমনভাবে চলছি যে আমরা কখনও এর গভীরে কখনও যাইনি। কিন্তু এবার এই ঘটনায় দেখা যাচ্ছে, তিনজন মন্ত্রীর গাড়ির ড্রাইভারের লাইসেন্স নেই, লাইসেন্সের জন্য এমপি পঙ্কজ দেবনাথ তো দুই ঘণ্টা আটকে ছিলেন। সচিবের গাড়ির চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। পুলিশের গাড়ির চালকের লাইসেন্স নেই। তারাই আইনরক্ষাকারী, তাদেরই আমাদের রক্ষা করার কথা আর তাদেরই ড্রাইভারের লাইসেন্স নেই। এতেই বোঝা যায় দুর্নীতি যার দুঃশাসনে দেশ ভরে গেছে।
মওদুদ আহমদ বলেন, এটা তো দুর্নীতি, দেশে এক লাখ চালক নাকি লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালাচ্ছে। আবার ফিটনেসবিহীন গাড়ির সংখ্যা আরও বেশি। এই বাস-ট্রাকগুলোর মালিক কারা? খুঁজে দেখবেন এটা শুধু নৌমন্ত্রী নন, সরকারের অনেক মন্ত্রী-এমপি আছেন এই বাস-ট্রাকের মালিক। এদের প্রত্যেকের নাম ঘোষণা করতে হবে। সরকারকে বলবো, যদি স্বচ্ছতা প্রমাণ করতে চান তাহলে তাদের নাম প্রকাশ করুন। শুধু নৌমন্ত্রী নন, এদের সবাইকে দায়-দায়িত্ব নিতে হবে।
এদিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও নামের একটি সংগঠনের আয়োজিত মানববন্ধনে  বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান রুহুল আলম চৌধুরী বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার নামে মিথ্যা মামলার রায়সহ বিভিন্ন বিষয়ে সরকারের অনিয়ম দেখে দেখে জনগণ অতিষ্ঠ হয়ে উঠায় অলরেডি আন্দোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। আন্দোলনের মধ্য দিয়েই সরকারের পতন সহ দেশে গণতন্ত্র ফেরানো হবে।
রুহুল আলম চৌধুরী বলেন, দেশের জনগণের অধিকার নাই। দেশে গণতন্ত্র নাই।  সরকারের এসব অনিয়ম দেখে জনগণ আজ অতিষ্ঠ। তার জন্য বিএনপি ও ২০ দলীয় জোট অলরেডি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্দোলনের মধ্য দিয়েই ‘গণতন্ত্রের মাতা’ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্দিকে মুক্ত করার।
এসময় তিনি বিএনপিসহ ২০ দলীয় নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ হোন। কেন্দ্রীয় নেতারা আন্দোলনের ডাক দিলে সবাইকে ঝাঁপিয়ে পরড়তে হবে এবং দেশবাসীকে অনুরোধ করবো আপনারাও ন্যায়ের পক্ষে থাকবেন। এই সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করেই দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে।
নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটা ঘটনার কারণে কোমলমতি ছাত্ররা আজ রাস্তায়। কেন তারা রাস্তায়? কারণ, যাদের বেতন দেয়া হয় যাদের পেছনে কোটি কোটি টাকা খরচ করা হয়। তারা এটা করতে পারেনি। যার কারণে ছাত্ররা রাস্তায় নেমে দেখিয়ে দিয়েছে।
আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কে.এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ মোঃ সেলিম মিঞার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূইয়া, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আখতারুজ্জামান বাচ্চু ও ছাত্রদল নেত্রী আরিফা আক্তার রুমা প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ