ঢাকা, মঙ্গলবার 7 August 2018, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কাশ্মীরে বিক্ষোভের মুখে সংবিধানের ধারা বাতিলের শুনানি আরও দু’সপ্তাহ স্থগিত

বিতর্কিত সাংবিধানিক ধারা বাতিলের দাবিতে কাশ্মীরে বিক্ষোভ

৬ জুলাই, কাশ্মীর মনিটর, টাইমস অব ইন্ডিয়া : ভারতের সংবিধানের ৩৫এ অনুচ্ছেদ বাতিল মামলার শুনানি আগামী ২৭ আগস্ট ধার্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট। গতকাল সোমবার প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র এ রায় ঘোষণা স্থগিত করেন। এ মামলার শুনানিতে তিন সদস্য বেঞ্চের একজন বিচারপতি অনুপস্থিত থাকায় রায় ঘোষণা স্থগিত করা হয়।

সংবিধানের ৩৫এ অনুচ্ছেদ বাতিল মামলার শুনানির আগে গতকাল সোমবার বিক্ষোভে উত্তাল ছিল গোটা কাশ্মীর উপত্যকা। ৩৫এ অনুচ্ছেদ বাতিল করা হলে কাশ্মীরের পরিস্থিতি আরও অবনতি হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছিল। পরিস্থিতি এতটাই ঘোলাটে ছিল যে মামলার শুনানি স্থগিত রাখার আবেদন করেছেন রাজ্যপাল এনএন ভোরা। বিক্ষোভকারীদের দাবি, সংবিধানের ৩৫এ অনুচ্ছেদ বাতিল করার দাবিতে যে জনস্বার্থ মামলা করা হয়েছে তা বাতিল করতে হবে।

৩৫এ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বিশেষ কিছু সুবিধা পেয়ে থাকেন কাশ্মীরের মানুষ। সেইসব সুবিধা বাতিলের দাবি করে ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলা করে উই দ্যা সিটিজেন্স নামে একটি সংগঠন। সেই মামলারই শুনানি হবে প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের একটি বেঞ্চে। অন্য দুই বিচারপতি হলেন এ এম খানওয়ালিকর ও বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়।

এই অনুচ্ছেদে রাজ্যের বাইরের কোনও লোক জম্মু ও কাশ্মীরের কোনও সম্পত্তি কিনতে পারেন না। পাশপাশি কাশ্মীরের কোনও মহিলা রাজ্যের বাইরের কাউকে বিয়ে করলে তিনি বাবার সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হন। ১৯৫৪ সালে এই অনুচ্ছেদটি সংবিধানে অর্ন্তভুক্ত করা হয়। এই অনুচ্ছেদের সমর্থনে ইতিমধ্যেই সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছে ন্যাশনাল কন্ফারেন্স ও সিপিএম। এছাড়াও রাজ্যের অন্যান্য দল ও সংগঠন এ নিয়ে রাস্তায় নেমেছে। রোববার এনিয়ে বিক্ষভের ডাক দেয় স্বাধীনতাকামীরা। ফলে সারদিন উপত্যকা ছিল শুনসান। দোকান বাজার বন্ধ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এদিন খোলেনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ