ঢাকা, মঙ্গলবার 7 August 2018, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল, আমির খসরু ও রিজভীর বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভীর বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে মামলা করেছেন এ বি সিদ্দিকী। ঢাকার মহানগর হাকিম এ এইচ এম তোয়াহা এই অভিযোগ তদন্ত করে তেজগাঁও থানার ওসিকে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন। গণমাধ্যমে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদী জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী।
মামলায় তিনি দাবি করছেন, ৪ আগস্ট বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ইলেক্ট্রনিকস ডিভাইস ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছেন। সেদিন তিনি কুমিল্লায় থাকা নওমী নামের এক কর্মীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি ওই কর্মীকে বলেছেন, ঢাকা এসে লোকজন নিয়ে নেমে পড়তে।
মামলায় এ বি সিদ্দিকী দাবি করছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রুহুল কবীর রিজভীর হুকুমে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে নিরীহ ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ছাত্রদলের কর্মীরা ঢুকে পড়েছে। ঢাকার ঝিগাতলায় ছাত্রদলের কর্মীরা আওয়ামী লীগের অফিসে হামলা করেছে। মিরপুরে মারপিট করেছে ছাত্রদল কর্মী। ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন পরিবহণে আগুন দিয়েছে। ছাত্রী ধর্ষণ ও ছাত্রছাত্রী নিহত হওয়ার গুজব ছড়িয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করেছে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ছাত্রদলের কর্মীদের ঢুকিয়ে দিয়ে এই তিন আসামী সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্র করেছেন।
মামলার ব্যাপারে বিএনপির আইনবিষয়ক সহসম্পাদক সৈয়দ জয়নাল আবেদিন মেজবাহ বলেন, মামলা হওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য এ বি সিদ্দিকী এই মিথ্যা মামলা করেছেন। এর আগে জননেত্রী পরিষদের সভাপতি সিদ্দিকী বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া, বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করেছেন। আদালতে সিদ্দিকীর আইনজীবী ছিলেন আবুল কালাম আজাদ।
এদিকে রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় নিজে এখন পর্যন্ত ৮৬ মামলার আসামি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এখন আর মামলা দিলে ভয় পাই না। বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা বহুবার জেলে গিয়েছি।  আমাদেরকে নির্যাতন করা হয়েছে অনেক। পাঁচ শতাধিক নেতা গুম হয়েছেন। নেতাকর্মীদের নামে ৭১ হাজার মামলা দেয়া হয়েছে। প্রায় ৭৮ হাজার নেতাকর্মী আসামি। তিনি বলেন, গণতন্ত্রের কথা বলার জন্য আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে। শুনেছি যে নতুন করে আমার নামে একটি মামলা হয়েছে। আমরা মামলাকে এখন আর বেশিকিছু একটা মনে করি না। আমার নামে এখন পর্যন্ত ৮৬টি মামলা রয়েছে। মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের বেশিরভাগ নেতার মামলা একশ’- দেড়শ’। কারও আবার দুইশ’ পার হয়ে গেছে। এটা কোনো সমস্যা নয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ