ঢাকা, মঙ্গলবার 7 August 2018, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ছাত্র বিক্ষোভকারীদের ওপর দমন পীড়নের অবসান ঘটাতে হবে

স্টাফ রিপোর্টার : নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রদের আন্দোলনে দমন-পীড়ন বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। একই সঙ্গে এই আন্দোলনের পক্ষে যারা কথা বলছেন, তাদের উপরও দমন-পীড়ন বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ব্রিটিশ এই মানবাধিকার সংস্থা। প্রখ্যাত আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে শিগগিরই এবং শর্তহীন মুক্তি  দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি।
গতকাল সোমবার দেয়া বিবৃতিতে সংস্থাটি বলছে, ছাত্র বিক্ষোভকারীদের ওপর দমন-পীড়নের অবসান ঘটাতে বাংলাদেশ সরকারকে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে। ছাত্রদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার ও নিরাপত্তা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। এসব অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করতে হবে এবং সুরক্ষা দিতে হবে। পুলিশের বলপ্রয়োগের ঘটনায় শিগগিরই এবং কার্যকর তদন্ত করা উচিত।
বিবৃতিতে ছাত্রদের বিক্ষোভে সরকারপন্থীদের হামলা ও সহিংসতা পুলিশের নিশ্চুপ থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে অ্যামনেস্টি। সংস্থাটি বলছে, শিক্ষার্থীদের ওপর সরকারপন্থীদের হামলা ও সহিংসতা থামাতে পুলিশ কেন ব্যবস্থা নেয়নি।
প্রখ্যাত আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে শিগগিরই এবং শর্তহীন মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি। ব্রিটিশ এই মানবাধিকার সংস্থা বলছে, ৫ আগস্ট ঢাকায় নিজ বাসা থেকে শহিদুলকে সাদা পোশাকের পুলিশ সদস্যরা তুলে নিয়ে যায়।
অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক উপ-পরিচালক ওমর ওয়ারাইচ বলেছেন, শহিদুল আলমকে অবিলম্বে নিশর্ত মুক্তি দিতে হবে। শান্তিপূর্ণভাবে মতামত প্রকাশ করার জন্য কাউকে আটকের পক্ষে কোন যুক্তি থাকতে পারে না।
গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহত ও আরো ১৩ জন আহত হয়। এ ঘটনার পর থেকে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে অবস্থান করে বেপরোয়া বাস চালকের ফাঁসি, ফিটনেসবিহীন গাড়ি এবং লাইসেন্স ছাড়া চালকদের গাড়ি চালনা বন্ধসহ ৯ দফা দাবি আদায়ে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।
ওমর ওয়ারাইচ বলেন, এই বছরের শেষ দিকে জাতীয় নির্বাচন রয়েছে, এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে, সরকার তার মত প্রকাশের স্বাধীনতা, সংগঠন, শান্তিপূর্ণ সমাবেশ এবং ব্যক্তিদের নিরাপত্তার অধিকার সুরক্ষার সাথে আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ