ঢাকা, মঙ্গলবার 7 August 2018, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

‘চলুক গুলী টিয়ার গ্যাস পাশে আছি বাংলাদেশ’

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকার চলমান অন্দোলনের ঢেউ আছরে পরেছে পাশ্ববর্তী দেশ ভারতেও। বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় চলমান আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে গতকাল সোমবার কলকাতায় শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশ হাইকমিশন ঘেরাও করেছে। এতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও সর্বভারতীয় ছাত্র সংগঠন ডিএসও অংশ নেয়। এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক ধস্তাধস্তি হয়েছে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইভেন্ট খুলে সমাবেশের ডাক দেয় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ইভেন্টের স্লোগান দেওয়া হয়েছে, ‘চলুক গুলী, টিয়ার গ্যাস, পাশে আছি বাংলাদেশ।’ কলকাতার পার্ক সার্কাসে সেভেন পয়েন্টে শিক্ষার্থীরা সমাবেশ করে। সমাবেশ শেষে শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে বাংলাদেশ হাইকমিশন ঘেরাও করতে গেলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়।
গণমাধ্যমকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র সৈকত শীট বলেন, বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা সড়কের খারাপ অবস্থা শোধরানোর জন্য রাস্তায় নেমেছে। এটি আমাদের আশা জাগিয়েছে। আমাদের মনে হয়েছে, এই আন্দোলনের মাধ্যমে ছাত্ররা নতুন সমাজের কথা বলছে। কিন্তু সরকারের ছাত্র সংগঠন এই আন্দোলন দাবিয়ে রাখার চেষ্টা করছে। আন্দোলন সুষ্ঠুভাবে চলতে না দিয়ে দমনপীড়ন একেবারের ঠিক নয়।
এছাড়া কলকাতার মৌলালি থেকে এক পদযাত্রা বের করে বামপন্থী সংগঠন এসইউসিআই’এর ছাত্র সংগঠন অল ইন্ডিয়া ডেমোক্রেটিক স্টুডেন্টস অহর্গানাইজেশন (এআইডিএসও)। মিছিলটি সিআইটি রোড, পাক সার্কাস হয়ে বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের কাছে গেলে পুলিশ তাদেরকেও থামিয়ে দেয়।
এআইডিএসও এর রাজ্য সম্পদক সৌরভ বসু বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা লাগাতার আন্দোলন করছে। এটি আমাদের কাছে অনুপ্রেরণা। সেই কারণে এই আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে এবং আন্দোলনকারীদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়ে আমরা এই সংহতি মিছিলের আয়োজন করেছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ