ঢাকা, মঙ্গলবার 7 August 2018, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৪ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আইনশৃঙ্খলা পর্যালোচনা সভা

রংপুর অফিস: বাংলাদেশ পুলিশ রংপুর রেঞ্জের মাসিক অপরাধ ও আইন-শৃঙ্খলা পর্যালোচনা সভা গত মঙ্গলবার ডিআইজি অফিসের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
রংপুর রেঞ্জের নবাগত ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য এতে সভাপতিত্বে করেন। সভায় রংপুর রেঞ্জে এবছর জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত অপরাধ পরিস্থিতি, গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিল, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনাসহ আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ বিষয়ে আলোচনা করা হয়।
এতে বক্তব্য রাখেন রংপুর রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মজিদ আলী, রংপুরের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, ঠাকুরগাঁও এর পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ, কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম, পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার  গিয়াস উদ্দিন আ‏হ্মদ, দিনাজপুরের পুলিশ সুপার হামিদুল আলম, বিপিএম, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন, রংপুর এর পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবীর, লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক, গাইবান্ধার পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়া, নীলফামারীর পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি অফিসের পুলিশ সুপার (কমান্ড্যান্ট, অতিরিক্ত দায়িত্বে, আরআরএফ, রংপুর), আব্দুল লতিফ, সিআইডি, রংপুর এর সহকারি পুলিশ সুপার সরোয়ার কবীর সোহাগ প্রমুখ। সভায় রংপুর রেঞ্জে কর্মরত সকল স্তরের পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কর্ম¯পৃহা ও কর্মচাঞ্চল্য বাড়ানোর লক্ষ্যে ২০১৮ সালের জুন মাসে দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর সার্কেল এর সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আখিউল ইসলাম, রংপুর জেলার কাউনিয়া থানার এসআই সুলতান আলী, লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা থানার এসআই নুর আলম সরকার, গাইবান্ধা জেলার এসআই  মনিরুল হক, শ্রেষ্ঠ এএসআই হিসেবে লালমনিরহাট সদর থানার এএসআই  মোফাজ্জল হোসেন, শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার হিসেবে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানার এএসআই শওকত আলম সিদ্দিকী, শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক ইউনিট হিসেবে দিনাজপুর, শ্রেষ্ঠ থানা হিসেবে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানা এবং জেলা হিসেবে পুলিশ সুপার, দিনাজপুর নির্বাচিত হন।
পরে ডিআইজি ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ