ঢাকা, বুধবার 8 August 2018, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৫ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চুয়াডাঙ্গায় ৬ষ্ঠ দিনের মতো বাস ধর্মঘটে জনজীবন বিপর্যস্ত

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : সারদেশে বাস চলাচল শুরু হলেও চুয়াডাঙ্গা থেকে ছেড়ে যাওয়া দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাস চলাচলে ঝিনাইদহে বাধা দেয়ার প্রতিবাদে চুয়াডাঙ্গার মালিক-শ্রমিকদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট গতকাল ৬ষ্ঠ দিন অতিবাহিত হলেও সমাধানের উদ্যোগ না নেয়ায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। 

গত বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) থেকে এ পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেয় চুয়াডাঙ্গা জেলা মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। গতকাল মঙ্গলবার ৬ষ্ঠ দিনের মতো এ ধর্মঘট চলেছে। টানা ছয়দিন দূরপাল্লাসহ জেলার অভ্যন্তরীণ সকল রুটে সব ধরনের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ যাত্রীরা। প্রয়োজনীয় কাজে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছে না তারা। 

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ঝিনাইদহ বাস মিনিবাস মালিক সমিতির নেতাকর্মীরা চুয়াডাঙ্গা থেকে ছেড়ে যাওয়া বাস চলাচলে বাধা দিলে এরই প্রতিবাদে তাদের এ ধর্মঘট। যতক্ষণ পর্যন্ত তাদের এ সমস্যার সমাধান না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত তারা এ ধর্মঘট চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছে চুয়াডাঙ্গা জেলা মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নেতা ও চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এম জেনারেল ইসলাম জানান, ঝিনাইদহে রয়েল এক্সপ্রেসের কাউন্টার বন্ধ করে বাস ফেরত দিলে তার প্রতিবাদে মালিকরা বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। 

পাশাপাশি তারা ঝিনাইদহ-চুয়াডাঙ্গা রুটের লোকাল বাসের যে ৬০ ট্রিপ ঝিনাইদহ মালিক সমিতি চালিয়ে আসছে তার মধ্যে থেকে অর্ধেক ট্রিপ চুয়াডাঙ্গার দুই মালিক সমিতিকে দেয়ার দাবি করছে।

এদিকে দীর্ঘ ৬ দিন বাস বন্ধ থাকায় যাত্রীদের পাশাপাশি মোটর শ্রমিকরাও বিপাকে পড়েছে।

দিন আনা দিন খাওয়া এসব শ্রমিকরা টানা ধর্মঘটের কবলে পড়ে পরিবার পরিজন নিয়ে চরম অভাব অনাটনে দিনাতিপাত করছে। ঈদের আগে টানা ধর্মঘটের কারণে জনদুর্ভোগের পাশাপাশি হাটবাজারে পণ্য সংকটের আশংকা দেখা দিয়েছে। গতকাল এ রিপোর্ট লেখা পযর্ন্ত প্রশাসনের তেমন কোন উদ্যোগের সংবাদও পাওয়া যায়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ