ঢাকা, বুধবার 8 August 2018, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৫ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ মহাসড়কে আবারও ট্রাক উল্টে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা: ১২ ঘন্টা সড়ক বন্ধ থাকার পর পুনরায় খানাখন্দে ভরা মহাসড়কের গর্তে পরে গতকাল ভোর রাতে আগৈলঝাড়ায় মালবোঝাই ট্র্যাক উল্টে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় ওই সড়ক দিয়ে চলাচলকারী যাত্রীরা পড়েছেন মহা বিপদে। এর আগেও গাড়ি দেবে ১২ ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল।
বরিশাল সওজ সূত্রে জানা গেছে, গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের প্রায় ৪কিলোমিটার খানাখন্দ ও গর্তের সৃষ্টি হয়। টেন্ডার হলেও ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সড়কটি দীর্ঘদিনেও সংস্কার না করায় সড়কের চার কিলোমিটারই খানাখন্দ ও গর্ত রয়ে যায়। বৃষ্টির কারনে গর্তে পানি জমে থাকায় গাড়ী পরে উল্টে যাচ্ছে। এ কারনে প্রতিদিনই ওই সড়কে ঘটছে দূর্ঘটনা। গত এক সপ্তাহে দুই বার এই সড়কে গাড়ী দেবে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। গতকাল ভোর রাতে উপজেলার বাইপাস সড়কের ফুল্লশ্রী নামক স্থানে গর্তে পরে পিয়াঁজ বোঝাই ট্রাক মহাসড়কের উপর উল্টে যায়। ওই স্থানের পাশ দিয়ে পোল্ট্রি খাবার বোঝাই ট্রাক যাওয়ার সময় গর্তে পরে সেটাও আটকে যায়। এ কারনে ভোর রাত থেকে মহাসড়কের যানবাহন চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায়। সড়কের দুই পাশে অসংখ্য পন্যবাহী ও যাত্রীবাহী গাড়ী আটকা পরেছে। ওই চার কিলোমিটার সড়ক দিয়ে গাড়ী চলাচলের সমস্যার কথা ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে একাধিকবার জানিয়েছেন বলে সওজ সূত্রে জানা গেছে। এর আগে দুটি ট্রাক পাশাপাশি সাইড দিতে গিয়ে দেবে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।
এ ব্যাপারে বরিশাল সওজ নির্বাহী প্রকৌশলী মো. গোলাম মোস্তফা জানান, তিনি ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়ে রাস্তা মেরামত করে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রাখবেন। তিনি আরও বলেন, বৃষ্টির কারণে সড়কের চার কিলোমিটার জায়গা ঢালাই দেয়া যাচ্ছে না। বৃষ্টি কমলে সিলকোড করা হবে। আসন্ন ঈদুল আযহার আগেই স্বাভাবিকভাবে গাড়ি চলাচলের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ