ঢাকা, বৃহস্পতিবার 9 August 2018, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৬ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রস্তুতি ভালো হওয়ায় আশাবাদী শুটার শাকিল

স্পোর্টস রিপোর্টার : এশিয়ান গেমসে এ পর্যন্ত বাংলাদেশের পাওয়া ১২টি পদকের মধ্যে শুটিং থেকে আসেনি একটিও। এবার সে হতাশা দূর করতে চান শাকিল আহমেদ। গত কমনওয়েল গেমসে রৌপ্য পদক জয়ী এই শুটার এশিয়ান গেমস নিয়ে আশাবাদী হচ্ছেন প্রস্তুতি ভালো হওয়ার কারণে।আগামী ১৮ আগস্ট ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা-পালেমবাংয়ে শুরু হবে এশিয়ান গেমসের ১৮তম আসর। এবার পুরুষ ফুটবল, কাবাডি, হকি, শুটিং, সাঁতার, অ্যাথলেটিক্স, ভারোত্তোলন, রেসলিং, বাস্কেটবল, ব্রিজ, গলফ, বিচ ভলিবল, রোয়িং ও আর্চারি-এই ১৪ ডিসিপ্লিনে ছেলে (৮৬ জন) ও মেয়ে (৩১ জন) মিলিয়ে ১১৭ জন অ্যাথলেট অংশ নেবে।

এশিয়ান গেমসের এবারের আসরে শুটিংয়ে পদকের লড়াইয়ে নামবেন বাংলাদেশের ১৬ জন শুটার।  এশিয়ান গেমসের ইতিহাসে শুটিং থেকে সাফল্য না থাকলেও কমনওয়েলথ গেমসে শুটাররা এ পর্যন্ত দুটি স্বর্ন, চারটি রৌপ্য ও দুটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন। গোল্ডকোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে ৫০ মিটার পিস্তলে শাকিল এবং ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে আব্দুল্লাহ হেল বাকি রৌপ্য পদক জিতেছিলেন। গোল্ড কোস্টে ৫০ মিটার পিস্তলে ২২০ দশমিক ৫ স্কোর গড়ে রুপা জেতা শাকিল অবশ্য এশিয়ান গেমসে খেলবেন ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে, এই ইভেন্টে গোল্ড কোস্টে তিনি চতুর্থ হয়েছিলেন। গত কমনওয়েলথ গেমসে ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে ২৪৪ দশমিক ৭ স্কোর গড়ে রুপা জেতা বাকির এশিয়ান গেমসের ইভেন্ট একই থাকছে। উল্লেখ্য ২০১০ সালের দিল্লি কমনওয়েলথ শুটিংয়ে মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে স্বর্ন জয়ী শারমিন আক্তার রতœাও লম্বা বিরতির পর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলতে যাচ্ছেন। ২০১৫ সালের পর এই প্রথম আন্তর্জাতিক কোনো প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন তিনি। ইন্দোনেশিয়ায় রওনা দেওয়ার আগে গতকাল বুধবার বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সংবাদ সম্মেলনে চীন, কোরিয়ার শুটারদের সমীহ করলেও পদকের খরা ঘোচানোর আশাবাদ ব্যক্ত করেন শাকিল। তিনি বললেন, “প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। প্রস্তুতিতে যে স্কোর করেছি সেটা আসলে এশিয়ান গেমসে পদক পাওয়ার মতো। যদি এখানকার স্কোর ধরে রাখতে পারি, তাহলে পদক পাবো। চীন-কোরিয়ার শুটাররা বর্তমানে যেমন স্কোর করছে, সেটা আমিও এখানে প্রস্তুতিতে করছি। তাই এটা ধরে রাখতে পারলে পদক পাব বলে আশা করি।” লম্বা বিরতির পর অনুশীলনে ফেরা রতœা অবশ্য ভালো কিছু করার চেষ্টাতেই সীমাবদ্ধ রাখছেন লক্ষ্য।তিনি বললেন, “২০১৫ সালের পর এই প্রথম আন্তর্জাতিক ইভেন্টে অংশ নিচ্ছি। এশিয়ান গেমস আসলে অনেক বড় আসর। এর আগে আমি এশিয়ান এয়ারগান চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিয়েছি। ওখানে অংশ নেওয়ায় বুঝতে পেরেছি এই প্রতিযোগিতাগুলো কত কঠিন। তবে প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। চেষ্টা করব ভালো কিছু করার।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ