ঢাকা, বৃহস্পতিবার 9 August 2018, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৬ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাঘাটার ভরতখালী উচ্চ বিদ্যালয়ে ভবন ও প্রাচীর নির্মাণ জরুরী

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী উচ্চ বিদ্যালয়ে ভবন ও প্রাচীর নির্মাণ জরুরী হয়ে পড়েছে।
গত সোমবার সরেজমিনে জানা যায়, বিদ্যালয়টি ১৯৪০ সালে স্থাপিত হয়। ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণিতে ৬৬৫ জন ছাত্র/ছাত্রীকে ১৭জন শিক্ষক পাঠদান করে আসছেন।
প্রতি বছরেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি ফলাফলে সাফল্য কুড়িয়েছে। তিনজন বৃত্তি প্রাপ্ত ছাত্র/ছাত্রী রয়েছে। নদী ভাঙ্গন ও গরীব হতদরিদ্র শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা দেওয়া হয়।
সমস্যা গুলো হল, ১৯৪২ সালে নির্মিত একটি পুরাতন ভবন যা বর্তমানে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।
উক্ত ভবনেই চলছে পাঠদান। বিদ্যালয়ের চর্তুরদিকে প্রাচীর না থাকায় যানবাহন ও লোকজন চলাচল করায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে।
সম্প্রতি, গাইবান্ধা -সাঘাটা সড়কের নিমার্ণ কাজে ব্যবহৃত ইট, খোয়া, বালু রাখায় এখন খেলার মাঠটি অনুপযোগী হয়ে
পড়েছে। প্রতিষ্ঠানটিতে জরুরী হয়ে পড়েছে একটি শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরে ভবন যা নিমার্ণ হলে শিক্ষার্থীরা ঝুঁকিমুক্ত ক্লাস করতে পারবেন।
এছাড়া প্রাচীর নিমার্ণ করা হলে লেখাপড়ায় মনোনিবেশ ঘটবে ছাত্র/ছাত্রীদের। প্রধান শিক্ষক মোঃ রেজাউল করিম মন্ডল বলেন,
আমি বিদ্যালয়ে যোগদানের পর ফলাফলে সাফল্য অর্জন হয়েছে। ভবন ও প্রাচীর নিমার্ণ হলে বিদ্যালয়টিতে লেখাপড়ার মান আরও বৃদ্ধি পাবে।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আহসান হাবীব বলেন, আমি সরেজমিনে গিয়ে এসব সমস্যার সমাধান করব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ