ঢাকা, শুক্রবার 10 August 2018, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৭ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জুলাই মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : জুলাই মাসে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কেন্দ্রিক আলোচনা, খালেদা জিয়ার মুক্তি, সাংবাদিক মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা, বরিশাল, সিলেট ও রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে রাজনৈতিক মাঠ ছিল সরব। এ মাসে ১০৫টি রাজনৈতিক ঘটনার তথ্যে নিহতের সংখ্যা ৫। এই ৫ জনের ৩ জনই খুন হয় আওয়ামী লীগের হাতে এবং যুবলীগের হাতে বাকি ২ জন। এ মাসে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতায় প্রাপ্ত তথ্যে আহত হয় ২৮৬ জন এবং গ্রেফতার অনেক বেশী হলেও ১৬১ জনের খবর পাওয়া গেছে বাকিদের তথ্য পাওয়া যায়নি। গ্রেফতারকৃতরা অধিকাংশই বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মী। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মধ্যে দ-প্রাপ্ত ১৮ জন, এই ১৮  জনের আওয়ামী লীগের ৩, ছাত্রলীগের-৭, যুব লীগের ৪, বিএনপির-২, জাপার-১ ও জামায়াতের ১ জন। জুলাই মাসে প্রাপ্ত তথ্যে নিহত যারা- (১) নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে সুজন মিয়া ও (২) রোজিনা আক্তার নিহত হয় ও (৩) জামালপুর সদরে মাওলানা আব্দুল হক হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা আটক এবং (৪) ঢাকার মহাখালীতে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে কাজী রাশেদ নামে এক কর্মী খুন ও (৪) পাবনার ঈশ্বরদীতে যুবলীগ কর্মী আলম খুনের ঘটনায় অপর নেতা আটক।

আওয়ামী লীগ : ১ জুলাই মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে ধলেশ্বর নদী দখল করে পাওয়ার প্লান্ট তৈরি করায় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান ও জামির্তা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম রাজুসহ কয়েকজনের নামে মামলা করে সরকার। জেলা প্রশাসকের নিষেধ অমান্য এবং নদী কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদারের নিষেধ সত্ত্বেও তারা জায়গা দখল করে পাওয়ার প্লান্ট তৈরি করে। ৬ জুলাই যশোরের চৌগাছায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শাহজান আলী ও সাধারন সম্পাদক মেহেদী মাসুদ চৌধুরীর পিতা আবুল কাশেম চৌধুরী ও চাচা আবুল কালাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা করার অভিযোগ দায়ের করা হয়। ৭ জুলাই ঝিনাইদাহের শৈলকুপায় ভাটাবাড়িয়া গ্রামের আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুর রহমান মেম্বার ও আফজাল হোসেন গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে রেজাউর ইসলাম, রিপন হোসেন, আক্তার হোসেন, জামাল হোসেন, লালচান হোসেন, ইমরান হোসেন, হিরক ইসলাম ও মোক্তার হোসেনসহ আহত ৩০ জন। কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে কলাকুপা ও নন্দরামপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের দু’গ্রপের সংঘর্ষে ৫০ জন আহত। আওয়ামী লীগ কুলিয়ারচর উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মেজবাউল ইসলাম এবং ছয়সূতী ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি সানু মিয়ার ছেলে যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মধ্যারচর গ্রামে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে সুজন মিয়া ও রোজিনা আক্তার নিহত হয় এবং বাবুল মিয়া, লিটন মিয়া, আসমা, হযরত আলী ও আবুল হাসানসহ ১০ জন আহত হয়। যুবলীগ নেতা বাবুল মিয়া ও আওয়ামী লীগ নেতা লিটন মিয়ার মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ হয়। বাবুল মিয়ার স্ত্রী রোজিনা আক্তার ৮ জুলাই চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যায় এবং নিহত সুজন মিয়া অপর গ্রুপ লিটন মিয়ার সমর্থক। 

১০ জুলাই নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি সাকলাইন জাহাঙ্গীর স্বপনকে নিজ বাড়ি থেকে ৩০০ পিস ইয়াবাসহ আটক করে পুলিশ। ১১ জুলাই রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘনের অভিযোগ করে বিএনপি। বিএনপি মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের পক্ষে বিএনপি নেতা তোফাজ্জল হোসেন তপু ধানের শীষের পোস্টার ও ব্যানার টাঙ্গাতে বাধা দেয়া এবং নির্বাচনী কর্মীদের লাঞ্ছিত করায় সিটি করপোরেশন আচরণ বিধির ১৬, ধারা-৭(গ), ১৮(ঘ) ও ৩০ ধারা লংঘনের অভিযোগ করা হয়। ১২ জুলাই কুমিল্লার চান্দিনায় রেদওয়ান আহমেদ ডিগ্রি কলেজে আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগের হামলায় এলডিপির সভাপতি ড. অলি আহমেদ বীর বিক্রমের গাড়ি ঢাকা-মেট্রো-ঘ-১৩-৪৬৪৬ ভাংচুর করা হয় বলে এলডিপি অভিযোগ করে। কক্সবাজার জেলা বিএনপি এক সাংবাদিক সম্মেলনে পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রচারণায় আওয়ামী লীগ বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করে। ১৩ জুলাই সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় কোনো কোনো নেতার গুণকীর্তন করায় হট্টগোল বাধে। ১৪ জুলাই সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে টিলাগড় এলাকায় জামায়াতের প্রচারণার সময় আওয়ামী লীগের হামলায় ২ জামায়াত কর্মী আহত হয়। 

১৫ জুলাই সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হাউজিং এলাকায় জামায়াতের প্রচারণার সময় আওয়ামী লীগের হামলায় ৫ জামায়াত কর্মী আহত হয়। মাদারীপুরের কালকিনি পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণু সম্পাদক এনায়েত হোসেনের উপর হামলায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মীর গোলাম ফারুক, পৌর কাউন্সিলর তোফাজ্জল হোসেন দাদন, গোলাম মোস্তফা, হাবুল চৌকিদার ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের স্বামী ওমর ফারুক হাওলাদারসহ ৭-৮ জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়। ১৭ জুলাই রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সাগরপাড়া এলাকায় বিএনপির গণসংযোগে আওয়ামী লীগ হামলা করে বলে বিএনপি অভিযোগ করে। তাদের ককটেল হামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান ও কর্মী স্বপন কুমারসহ ৫ জন আহত হয়। ১৯ জুলাই খুলনার দিঘলিয়ায় সেনহাটি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা গাজী জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়া গাজী ভিজিএফ-এর চাল আত্মসাৎ করায় তাকে বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। ২১ জুলাই জামালপুরের ইসলামপুরে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে দু’গ্রুপের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন হয়। ২১ জুলাই সিলেট শহরের বাগবাড়ী এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মখলিসুর রহমান কামরানের লোকজনের নির্বাচনে আচরণ বিধি লংঘনের ছবি তুলতে গেলে সিলেটের দৈনিক শ্যামল পত্রিকার সিনিয়ার আলোকচিত্রী এ.এইচ আরিফের উপর হামলা ও তার ক্যামেরা ভাংচুর করে আওয়ামী লীগ কর্মীরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ