ঢাকা, শনিবার 11 August 2018, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিপুল ভিওআইপি সামগ্রী ও ইয়াবাসহ ৪ জন গ্রেফতার

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া থানাধীন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমাণ অবৈধ ভিওআইপি সরঞ্জামাদিসহ ১ জন ভিওআইপি ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।
সূএের খবর, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া থানাধীন সৈয়দশাহ রোডস্থ ১৮ নং ওয়ার্ড পূর্ব বাকলিয়া এস এ এম শফি আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ এর সংলগ্ন হাজী ছালে আহম্মদের বাড়ি (মা নিবাস) এর তৃতীয় তলায় উত্তর পাশে রুমের ভিতর জনৈক ব্যক্তি সরকারি কর ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে ভিওআইপি ব্যবসা করছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে গত ৯ আগস্ট দুপুরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ সোহেল মাহমুদ এর নেতৃত্বে (চট্টগ্রাম বিটিআরসি এর সহকারী পরিচালক মোঃ কামরুল হাসান ভুঁইয়া এর সহায়তায়) সেখানে অভিযান পরিচালনা করলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টাকালে  মোঃ শাহাদাৎ হোসেন (৩৫), পিতা- মৃত নুরুল আলম, গ্রাম- আমান আলী পেশকার বাড়ি, সৈয়দশাহ রোড (১৮ নং পূর্ব বাকলিয়া), থানা- বাকলিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম মহানগর’কে গ্রেফতার করে। পরবর্তীতে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে বিপুল পরিমাণ অবৈধ ভিওআইপি সামগ্রী উদ্ধার করে। যার মধ্যে ২ টি গেটওয়ে (৮ পোর্ট), ১ টি ল্যাবটপ, ১ টি টিপি লিংক রাউটার, ৬ টি পাওয়ার ক্যাবল, ২ টি এডাপটার, ২ টি মাল্টি প্লাগ এবং বিভিন্ন কোম্পানির সীমকার্ড ২,২৬১ টি (রবি/এয়ারটেল- ১,৫২৯টি, টেলিটক- ১০৮টি, জিপি-১৩১টি এবং বাংলালিংক-৪৯৩টি) জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন যাবত অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছে। উলে¬খ্য যে, উদ্ধারকৃত ভিওআইপি সামগ্রীর আনুমানিক মূল্য পাঁচ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা। গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত ভিওআইপি মালামাল সংক্রান্তে চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।
এদিকে চট্টগ্রাম মহানগরীর চান্দগাঁও থানাধীন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭,৭৯০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭। সূএের খবর, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চট্টগ্রাম মহানগরীর চান্দগাঁও থানাধীন বহদ্দারহাট এলাকাস্থ আরাকান রোডের দক্ষিণ পাশে মেসার্স আলী এন্টারপ্রাইজ এর সামনে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদক ক্রয় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে গত ৯ আগস্ট বিকালে র‌্যাবের একটি দল সেখানে অভিযান পরিচালনা করে মোঃ সবুজ (৫০), পিতা- মৃত আব্দুছ ছোবহান, গ্রাম- মীর কালী (মহেষপুর), থানা- ইশ্বরগঞ্জ, জেলা- ময়মনসিংহ, মোঃ বাদশা মিয়া (৩৫), পিতা- মৃত আবু সিদ্দিক, গ্রাম- মহেষখালী পাড়া (নয়াপাড়া), থানা- টেকনাফ, জেলা- কক্সবাজার এবং মোঃ তৈয়ব (৩২), পিতা- হাফেজ মোঃ হানিফ, গ্রাম- হোয়াইক্যং নয়াপাড়া (নয়াপাড়া), থানা- টেকনাফ, জেলা- কক্সবাজার’দেরকে আটক করে। পরবর্তীতে আটককৃত আসামীদের হাতে থাকা ব্যাগ তল্লাশী করে ৭,৭৯০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আসামীদেরকে গ্রেফতার করা হয়। জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামীরা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবত ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয় বিক্রয় করে আসছে। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ৩৮ লক্ষ ৯৫ হাজার টাকা। গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মালামাল সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চট্টগ্রাম মহানগরীর চান্দগাঁও থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ