ঢাকা, শনিবার 11 August 2018, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নাটোরে গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে টাকা ছিনতাই

নাটোর সংবাদদাতা : নাটোরের গুরুদাসপুরে রফিকুল ইসলাম (৫০) নামের এক গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রফিকুল ইসলাম বর্তমানে আশংকাজনক অবস্থায় গুরুদাসপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীনে রয়েছেন। পারিবারিক ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, রফিকুল তার নিজ বাড়ী চাঁচকৈড় মধ্যম পাড়া থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর এক লাখ ৩৫ হাজার টাকা নিয়ে নারায়ণপুরের আফতাব উদ্দিনের বাড়িতে গরু কিনতে যান। কিন্তু দরদামে না মেলায় গরু না কিনে সেখান থেকে বাড়ি ফিরে যাচ্ছিলেন। পথে নারায়ণপুর গ্রামের মাহাতাব উকিলের আমবাগান সংলগ্ন ফাঁকা জায়গায় পৌছলে আগে থেকেই ওৎ পেতে থাকা একই গ্রামের মহসিন আলীর ছেলে মোবারক হোসেন ও মশিউর রহমান এবং মোবারক হোসেনের ছেলে আশরাফুল ইসলাম পথরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করে। পরে পকেটে থাকা টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তাকে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায় তারা। পরে পথচারীরা দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে গুরুদাসপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ব্যাপারে গুরুদাসপুর ওসি (তদন্ত) আনারুল ইসলাম জানান, বিষয়টি শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
বাবাকে গলা টিপে হত্যা
নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় জমি লিখে না দেওয়ায় আফসার আলী (৭০) নামে এক বাবাকে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছেন তারই ছেলে মোরশেদ (৩৫)। শুক্রবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে উপজেলার ভট্রপাড়া গ্রামে এ ঘটানা ঘটে। নিহত আফসার আলী ওই গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে। নালডাঙ্গা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর হোসেন খন্দকার বাংলানিউজকে জানান, মোরশেদ তার বাবার কাছে তার নামে জমি লিখে দেওয়ার জন্য দাবি করেন। বাবা আফসার আলী জমি লিখে দিতে অস্বীকার করেন। এসয়ম কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে ছেলে তার বাবার গলা টিপে ধরেন। এতে শ্বাসরোধ হয়ে আফসার আলীর মারা যান। এর আগেও কয়েকবার মোরশেদ তার বাবাকে মারধর করেছেন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তেন জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়ে দেয়। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে আঁখি আরা বাদী হত্যা মামলা দায়েরে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে ঘাতক ছেলে মোরশেদ পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ