ঢাকা, শনিবার 11 August 2018, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৮ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জুলাই মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : ॥ ২ ॥
২৯ জুলাই চট্টগ্রামের চকবাজারে যুবলীগ নেতা ফরিদুল ইসলাম হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ বাকালিয়া থানা সাধারণ সম্পাদক এম.এ মুছা, যুবলীগ নেতা মুরাদ, মাসুদ, চকবাজার থানা আওয়ামী লীগ নেতা তৌহিদুল আলম, রাসেল, ইকবাল হোসেন মিঠু, নবী ও জানে আলমকে ৮ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। ময়মনসিংহের ত্রিশালে বইলর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলকে ফৌজদারী মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামী হওয়ায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে। ৩০ জুলাই সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের লোকজন জাল ভোট দিতে থাকলে তাতে বাধা দেয়ায় তাদের হামলায় জামায়াত কর্মী আশরাফ উদ্দিন ও জাহিদ নামে দু’জন আহত হয়। জামালপুর সদরের ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের নেতা ও হজ্ব এজেন্সীর মুয়াল্লিম মাওলানা আব্দুল হক হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও নরুন্দি ইউপি চেয়ারম্যান শাহজান আলী সরকারকে আটক করে পুলিশ। নিহতের স্ত্রী মরিয়ম আক্তার ১৬ মে শাহজান আলী সরকার ও আব্দুল হকের ব্যবসায়িক পার্টনার চান মিয়াসহ অজ্ঞাদের নামে মামলা দায়ের করে। গত ১২ মে মাওলানা আব্দুল হককে হত্যা করা হয়। বিলম্বে তথ্যটি পাওয়ায় এ মাসের কলামে যুক্ত করা হলো। ৩১ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে পাইলট উচ্চবিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় নিজের মেয়েকে নকল নেয়ার অভিযোগে মামলায় ওয়ারেন্ট ইস্যু হলে আওয়ামী লীগ উপজেলা যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নাছির উদ্দিন আদালতে হাজির হলে আদালত ওই দিন তার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। 
ছাত্র লীগ : ১ জুলাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে কোটা বিরোধীদের মানববন্ধনে ছাত্রলীগের রাবি সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ  সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুর নেতৃত্বে ২৫-৩০ জনের হামলায় ১২ জন আহত হয়। ঢাকায় পুলিশ মিরপুর থেকে কোটা বিরোধী আন্দোলনের নেতা রাশেদ খান ও মাহফুজ খানকে আটক করে। একইভাবে সিলেট শাহ জালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের চাপে কোন কর্মসূচি পালন করতে পারেনি কোটা বিরোধীরা। ২ জুলাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর ফের ছাত্রলীগের হামলায় তারিকুল ইসলাম তারেকসহ ১১ জন আহত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি পালনকালে ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, মহসীন হল সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সানী, এস.এম হল শাখা সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান তাপস, বঙ্গবন্ধু হল সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন ও জহুরুল হক হল সভাপতি সোহানুর রহমানসহ কয়েকজনের হামলায় ফারুক হোসেন ও লুৎফুন নাহার নীলাসহ ৮ জন আহত হয়। ঢাকার সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলায় শাকিলুজ্জামান ও রাজিব আহমেদ আহত হয়। ৮ জুলাই ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিপীড়ন বিরোধী প্রগতিশীল ছাত্র জোটের বিক্ষোভ সমাবেশে ছাত্রলীগের হামলায় সাংবাদিকসহ ১৫ জন আহত। জবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেলের নেতৃত্বে হামলায় দৈনিক সমকালের সাংবাদিক লতিফুল ইসলাম, আমার সংবাদের আসলাম অর্ক, ইত্তেফাকের প্রতিবেদক আহসান জোবায়ের, ডেইলি সানের কবির হোসেন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি কিশোর কুমার সরকার, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বি, সাংগঠনিক সম্পাদক সমিত ভৌমিক, দফতর সম্পাদক অনিমেষ রায়, ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি রুহুল আমিন ও সদস্য জাহিদসহ ১৫ জন আহত হয়।
১০ জুলাই দিনাজপুরের বিরামপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করে ছাত্রলীগ নেতা আলে ইমরান উজ্জ্বল ও রবিউল ইসলাম সবুজের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের একাংশ। এ সময় তারা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি তানভীর ইসলাম রাহুল ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম ইমতিয়াজ ইনানের কুশপুত্তলিকা দাহ করে। ১১ জুলাই ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিক ও নিপীড়ন বিরোধী প্রগতিশীল ছাত্রজোটের বিক্ষোভ সমাবেশে ছাত্রলীগের হামলায় ১৫ জন আহত হওয়ার দায়ে জবি ছাত্রলীগ কর্মী আবুল হোসেন পরাগ ও নূরে আলম সিদ্দিকীকে সংগঠন থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ। মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলা ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে উপজেলা সভাপতি আব্দুল্লাহ আল-মামুন রুবেলের ওপর হামলা করে প্রতিপক্ষ। ওই হামলার ঘটনায় ২ জনকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ। ১৩ জুলাই রংপুরের পীরগাছায় দৈনিক প্রতিদিনের রংপুর প্রতিনিধি আব্দুর রহমান রাসেলের উপর হামলা করে উপজেলা ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক সালমান ইকবাল সানের নেতৃত্বে ১০-১২ জন নেতা-কর্মী। ১৪ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের হামলায় আসাদুজ্জামান ও লীনা নামে দু’জন আহত হয়। ছাত্রলীগ সূর্যসেন হল শাখা এই হামলা চালায়, পরে হল কর্তৃপক্ষ ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করে। ঢাকায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমাবেশে বাধা দেয় ছাত্রলীগ। প্রগতিশীল ছাত্রজোট সন্ত্রাস মুক্ত ক্যাম্পাস ও কোটা ব্যবস্থার যৌক্তিকতা তুলে ধরার জন্য এই সমাবেশের আয়োজন করে।
১৫ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কারকারীদের আটকের প্রতিবাদে আয়োজিত শিক্ষক, ছাত্র ও অভিভাবকদের যৌথ বিক্ষোভ মিছিলে ছাত্রলীগের হামলায় সাংবাদিকসহ ১৫ জন আহত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে ছাত্রলীগ কর্মী আলে-ইমরান পলাশ, সিফাত উল্লাহ ও মাহামুদুর রহমান অর্পন নামে সূর্যসেন হলের তিন কর্মীকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করে ঢাবি কর্তৃপক্ষ। গত ১৪ জুলাই তারা রোকেয়া গাজী লিনাকে লাঞ্ছিত ও শ্লীলতাহানি করে। ঢাকার সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনে ছাত্রীদের ধর্ষণের হুমকি দেয় ছাত্রলীগ নেতা হামজা রহমান অন্তর, কর্মী ইশকাত হারুন আকিব, জাহিদ হাসান ইমন, মাসুদ রানা ও রনি ভৌমিক। ১৬ জুলাই কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি রাজিব আহমেদের খাজনগর বাড়ি থেকে ১৭০ পিস ইয়াবা, ২টি এয়ারগান, ৫২৮ পিস গুলী ও ২৩টি সর্টগানের গুলিসহ তাকে আটক করে র‌্যাব-১২। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সূর্যসেন হল ক্যাফেটেরিয়ার সামনে হল শাখা ছাত্রলীগ উপ-বৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক আমজাদ হোসেন মঞ্জুর নেতৃত্বে ১০-১২ জন সিনিয়র ছাত্র আল-আমিনকে মারধর করে। ১৭ জুলাই ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি জালিয়াতির সাথে যুক্ত থাকার দায়ে ছাত্রলীগ জবি সাংগঠনিক সম্পাদক আকিব বিন বারীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নোয়াখালী সেনবাগ উপজেলা সাবেক ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল হক তানভীর আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠায়। গত ২০১৪ সালে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম বাবুর ওপর হামলা মামলায় তানভীর দীর্ঘদিনের পালাতক আসামী।
১৯ জুলাই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের ছাত্র-শিক্ষকদের উপর হামলা করে ছাত্রলীগ। তাদের হামলায় আলমগীর, মং সাথোয়াই মারমা, ইশরাক, ইমন কায়সার, আরিফ ইসলাম ও আবির আহত হয়। এছাড়া শিক্ষক মাইদুল ইসলাম এবং খ. আলী-আল-রাজীকে ক্যাম্পসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা ও লাঞ্ছিত করে ছাত্রলীগ। চট্টগ্রামের মিরসরাই থেকে বারইয়ারহাট কলেজ ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি ফরহাদ হোসেন রাজুকে ২০০ পিস ইয়াবাসহ আটক করে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। এর আগে ২৮ জুন রাজুর বাড়ি থেকে ১৭ বোতল ফেনসিডিল, ৯ বোতল বিয়ার ও ১ বোতল হুইস্কি আটক করে, তখন রাজু পালিয়ে যায়। ২২ জুলাই কুষ্টিয়ার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে জামিন নিয়ে বের হওয়ার সময় ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলায় আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহামুদুর রহমান ও তার সঙ্গীরা আহত হয়। এ সময় তার ব্যবহারিত গাড়িটিও ভাংচুর করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর কৌশল পাল্টিয়ে হামলা করে ছাত্রলীগ। গত ২১ জুলাই প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বাড়াবাড়ি করায় ছাত্রলীগ নেতাদের বাকাবকি করে, ফলে তারা কৌশল পাল্টিয়ে ছিনতাইকারী আখ্যা দিয়ে ক্যাম্পাসসহ বিভিন্ন স্থানে তাদের ওপর হামলা করলে বনি ইয়ামিন মোল্লা, রাতুল সরকার, সৌরভ ও মিয়াজীসহ ৬ জন আহত হয়। বিভিন্ন স্থানে হামলায় নেতৃত্ব দেয় ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপ-সম্পাদক মুরাদ হায়দার টিপু, ঢাবি সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান উজ্জ্বল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিদার মুহাম্মদ নিজামুল হক ও জহুরুল হল শাখা যুগ্ম সম্পাদক আমির হামজাসহ কয়েকজন।
২২ জুলাই দিনাজপুরের বিরামপুরে উপজেলা ও পৌর কমিটি গঠন নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা নয়ন ও পৌর যুগ্ম সম্পাদক তানভীর আনজুম হৃদয়ের উপর হামলা করে পদ বঞ্চিতরা। বরগুনার পাথরঘাটায় ছফিলপুর বাজারে ছাত্রলীগের হামলায় মাহমুদুল হাসান রনি, হাসান, আল-আমিন, কাওছার ও সজীব আহত হয়। কালমেঘা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজ হাওলাদারের নেতৃত্বে ১০-১৫ জনের হামলায় এরা আহত হয়। ২৩ জুলাই টাঙ্গাইল মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ৪ জন আহত হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হল ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান হল শাখার মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। ২৫ জুলাই ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ আহত হয় ৪ জন। জবি ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রুপ ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের মধ্যে নারী ঘটিত বিষয়ে সংঘর্ষে দৈনিক ইনকিলাবের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি নাইমুর রহমান নাবিল ও সভাপতি গ্রুপের কর্মী শরীফুল ইসলাম শিমুলসহ ৪ জন আহত হয়। সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের অর্ণব, সাজেদুল নাঈম, আশিকুর রহমান ও কৌণিকের নেতৃত্বে ওই হামলা করা হয়। ২৬ জুলাই চট্টগ্রাম মহানগরীর সিটি গেল এলাকা থেকে ছাত্রলীগ নেতা সোহেল হত্যা মামলার আসামী ওমর গনি কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী শামীম আজাদ ওরফে ব্লেড শামীমকে আটক করে পুলিশ। ২৮ জুলাই সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদরুদ্দিন আহমেদ কামরানের জনসভায় ছাত্রলীগের তাণ্ডব। জেলা ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের তাণ্ডবে সেখানে চেয়ার-টেবিল ভাংচুর ও তছনছ করা হয়। পুলিশ সেখান থেকে ছাত্রলীগের দু’কর্মীকে আটক করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ