ঢাকা, রোববার 12 August 2018, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সৈয়দপুর কারখানায় মেরামতকৃত কোচ দিয়ে চলবে ঈদ স্পেশাল ট্রেন

নীলফামারী সংবাদদাতা : ঈদে রেলপথে যাত্রা নিশ্চিত করতে ঢাকা থেকে রেলের পশ্চিমাঞ্চলে চলাচল করবে বিশেষ ৪টি ট্রেন। সেজন্য সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় বিভিন্ন শ্রেণির পুরাতন ৭৫টি কোচ মেরামত করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ৪৫টি কোচ মেরামত সম্পন্ন করে পাকশী ও লালমনিরহাট বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকী কোচগুলো আগামী ১৬ আগষ্টের মধ্যে হস্তান্তর করার নিশ্চয়তা দিয়েছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। সূত্রমতে, ঢাকা থেকে দিনাজপুর, রাজশাহী, লালমনিরহাট ও খুলনা রেলপথে চলবে ঈদের বিশেষ ৪টি ট্রেন। ওইসব ট্রেনের জন্য সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় মিটারগেজের ২০টি ও ব্রডগেজের ৫৫টি পুরাতন কোচ মেরামত করা হচ্ছে। বিশেষ ট্রেনে সংযুক্ত করার পর অতিরিক্ত কোচগুলো অন্যান্য ট্রেনের সাথে বিশেষ কোচ হিসেবে সংযোজন করা হবে। ১৮ আগষ্ট থেকে ঈদের পূর্বদিন এবং ঈদের পর ২৪ থেকে ৩০ আগষ্ট পর্যন্ত চলাচল করবে বিশেষ ট্রেনগুলি। তাই ছুটির দিন এবং অতিরিক্ত সময় দিয়ে কারখানার ৪টি সপের শ্রমিকরা দ্রুত সময়ে মেরামত সম্পন্ন করছে ঈদে ঘরমুখো মানুষের জন্য ৭৫টি কোচ। সিএইচআর সপের (ক্যারেজ হেভি রিপিয়ার সপ) সিনিয়র সাব-এসিসটেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মোমিনুল ইসলাম জানান, এ সপে ১৪০ জনবলের মধ্যে রয়েছে মাত্র ৫৬ জন শ্রমি। আর অল্প সংখ্যক জনবল দিয়ে প্রাপ্ত ১১টি কোচের মধ্যে ৭টি কোচ মেরামত সম্পন্ন করে হস্তান্তর করা হয়েছে। সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক মুহাম্মদ কুদরত-ই খুদা জানান, ১৬ আগষ্টের মধ্যে এসি বার্থ সহ ৭৫টি কোচই মেরামত সম্পন্ন করা হবে। ফলে এবারেও ঈদে অধিক সংখ্যক যাত্রী পরিবহন করা সম্ভব হবে। উলে¬খ্য যে, বর্তমানে কারখানায় যান্ত্রিক ও বৈদ্যুতিক বিভাগে মঞ্জুরীকৃত জনবল ৩ হাজার ১৭১ জনের স্থলে কর্মরত রয়েছে ১ হাজার ১৩৫ জন মাত্র।
শ্রীলঙ্কার ম্যাচের জন্য প্রস্তুত : সাফের আগে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে জাতীয় ফুটবল দল। ২৭ আগস্ট বাংলাদেশে আসবে শ্রীলঙ্কা। তাদের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা হবে নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়ামে। কিছুদিন আগে সংস্কার হয়েছে স্টেডিয়ামটি। এখন চলছে মাঠ প্রস্তুতির কাজ। জানা যায়, শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার জন্য প্রস্তুত নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়াম। ২০ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার এ স্টেডিয়ামটি প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ ম্যাচের খবরে নীলফামারীসহ আশেপাশের জেলার ফুটবল প্রিয় দর্শকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। নীলফামারী ও সৈয়দপুরে নির্দিষ্ট ব্যাংকের মাধ্যমে এ ম্যাচের টিকিট পাওয়া যাবে। শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা একদিন আগে বিমানযোগে সৈয়দপুরে আসবেন এবং রংপুরে অবস্থান করবেন। নীলফামারী পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন জানান, নিরাপত্তার বিষয়ে নেয়া হয়েছে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব, বিজিবি, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা, আনসার বাহিনী মাঠে কাজ করবে। প্রস্তুত থাকবে ফায়ার সার্ভিস ও এ্যাম্বুলেন্স। এর আগে যশোরে ফুটবল আয়োজন করে সফল হয়েছে বাফুফে। এবারে উত্তরবঙ্গে ফুটবলকে ছড়িয়ে দিতে চায় দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ