ঢাকা, রোববার 12 August 2018, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ২৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গাইবান্ধায় মা ও পোনা মাছ নিধন

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় অবাধে নিধন করা হচ্ছে মা ও পোনা মাছ।
এক শ্রেনির অসাধু মাছ প্রেমি ও জেলেরা সরকারি নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে কারেন্ট জালসহ বিভিন্ন দেশিয় মাছ ধরার উপকরণের মাধ্যমে মা এবং পোনা মাছ নিধন করছে।
এ কারনে বিলুপ্ত প্রায় দেশিও বিভিন্ন প্রজাতের  মাছ।
উপজেলার সরকারি বেসরকারি নদী-নালা, খাল-বিল, পুকুর-ডোবা ও নিচু জলাশয় সমূহে ইতোমধ্যে বিভিন্ন প্রজাতের দেশিও মাছ পোনা ছাড়তে শুরু করেছে।
বিশেষ করে কই, মাগুর, শিং, টাকি, গছি, পুটি, টেংরা, মলা, ঢেলা, খলিশা, শোল মাছসহ বিভিন্ন মাছ ডিম ও পোনা ছাড়তে শুরু করেছে।
এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেনির অসাধু মাছ প্রেমি ও জেলেরা দিন রাত কারেন্ট জালসহ বিভিন্ন মাছ ধরার উপকরণ দিয়ে অবাধে মা এবং পোনা মাছ ধরে বাজারে বিক্রি করছে। অনেকে ওইসব মাছ সুস্বাদু হওয়ায় তা মজা করে খাচ্ছে।
উপজেলার শোভাগঞ্জ, মীরগঞ্জ, সুন্দরগঞ্জ, রামজীবন, বেলকা, পাচঁপীর, কাঠগড়া, ধর্মপুর, হরিপুর হাটও বাজারে ঘুরে  ফিরে দেখা গেছে অবাধে বিক্রি করা হচ্ছে মা এবং পোনা মাছ।
এ নিয়ে কথা হয় শান্তিরাম গ্রামের মাছ বিক্রেতা তাজুল মিয়ার সাথে। তিনি বলেন তার অভাবি সংসার । এখন কোন প্রকার কাজ নেই ।
তাই কারেন্ট জাল দিয়ে সারা রাত মাছ ধরে বাজারে বিক্রি করে সংসার চালায় সে। এছাড়া অনেকে নিচু জলাশয় সমূহ সেঁচে মা ও পোনা মাছ ধরছে।
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ফজলে ইবনে কাওছার আলী জানান, জনবল সংকটের কারনে নিয়মিত তদারকি করা সম্ভব হচ্ছে না।
তাছাড়া ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না। সে কারনে অনিয়ম পরিলক্ষিত হচ্ছে। তবে আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ