ঢাকা, সোমবার 13 August 2018, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ১ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রংপুরে মিনিবাস চাপায় স্কুলছাত্র নিহত ৩ ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ ॥ বিক্ষোভ

রংপুর অফিস : রংপুর মহানগরীর দর্শনা এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় জিয়ন মিয়া নামে  দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে।
গতকাল রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঐ এলাকার ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের শুটকির আড়তের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার প্রতিবাদে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন আশে পাশের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা। জিয়ন মিয়া নগরীর কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। এ সময় জিয়নের লাশ নিতে আসা অ্যাম্বুলেন্সও ভাঙচুর করে বিক্ষোবকারীরা। দুপুর ২ টা পর্যন্ত  সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ চলে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জিয়ন মিয়া দর্শনার ঘাঘটপাড়া এলাকার একটি ছাত্রাবাসে থেকে পড়াশোনা করতো। সকালে প্রাইভেট পড়া শেষে মেসে ফেরার সময় গাইবান্ধা থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী একটি মিনিবাস ওই এলাকায় তাঁকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় জিয়ন। নিহত জিয়ন বদরগঞ্জের লোহানীপাড়া ইউনিয়নের ম-লের হাট গ্রামের জাহিদুল ইসলামের পুত্র। এদিকে দুর্ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের লোকজন মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা ২ টি বাস ও একটি এ্যাম্বুলেন্স ভাংচুর করে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় পুলিশসহ ১০ জন আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ও টিয়ার সেল ছুঁড়ে পুলিশ। ফলে যানচলাচল  ৩ ঘন্টা বন্ধ থাকে । এ সময় জিয়নের লাশ নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে গেলে সেটি ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ লোকজন। এ সময় সড়কের  উভয় পাশে শতশত বাস ট্রাক আটকা পড়ে যায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে রংপুর কোতয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) মোক্তারুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে বিক্ষুদ্ধ জনতার সাথে পুলিশের সংঘর্ষে পুলিশ সহ উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল-এ) সাইফুর রহমান জানান, দুপুর ২ টার পর পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাপার বৃক্ষ রোপণ উৎসব
মানবাধিকার ও পরিবেশ আন্দোলন (মাপা) বাংলাদেশ ও রংপুর সরকারী টিচার্স ট্রেনিং কলেজের যৌথ আয়োজনে গতকাল রোববার রংপুর টিটি কলেজ চত্বরে বৃক্ষরোপণ উৎসব পালিত হয়েছে।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। পরে তিনি বৃক্ষরোপণ উৎসবের উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষে টিটি কলেজ হলরুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নারায়ন কুমার কুণ্ড। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বেগম রোকেয়া বিশ^বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগীয় সহকারী অধ্যাপক ডক্টর তুহিন ওয়াদুদ, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডাক্তার জিকেএম আফজাল খান, বাংলাদেশ বেতার রংপুরের আঞ্চলিক বার্তা নিয়ন্ত্রক রাশেদ ফয়সল কবীর, বক্তব্য রাখেন টিটি কলেজের উপাধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন, শিক্ষাবিদ মলয় কিশোর ভট্রাচার্য্য, মাপার প্রধান নির্বাহী এ্যাডভোকেট এ এ এম মুনির চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোশফেকা রাজ্জাক, সহ-সভাপতি মাহবুবুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মনোয়ার হোসেন প্রমুখ। বৃক্ষরোপণ উৎসবে ছাত্র-শিক্ষক ও মাপার সদস্যরা অংশ নেয়। বৃক্ষরোপণ কর্মসুচিতে  বিভিন্ন প্রজাতির ২৪০টি গাছ রোপণ করা হয়।    

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ