ঢাকা, সোমবার 13 August 2018, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ১ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আদিবাসী স্বীকৃতির দাবির প্রতিবাদে বিক্ষোভ-সমাবেশ

আব্দুল্লাহ আল মামুন, (খাগড়াছড়ি) : খাগড়াছড়িতে রাষ্ট্র ও সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক আদিবাসী স্বীকৃতির দাবি ও অপপ্রচার করতে বিক্ষোভ করেছে পার্বত্য অধিকার ফোরাম নামে একটি সংগঠন।
বৃহস্পতিবার সকালে খাগড়াছড়ি শহরের শাপলা চত্বরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে বক্তারা রাষ্ট্র বিরোধী আদিবাসী স্বীকৃতি ও অপপ্রচার বন্ধের দাবি জানিয়ে, ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
প্রতিবাদ সমাবেশে পার্বত্য অধিকার ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাঈন উদ্দিনের সভাপতিত্বে খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মো: জাহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, খাগড়াছড়ি জেলা সাধারণ সম্পাদক এস এম মাসুম রানাসহ আরো অনেকে। এর আগে, চেঙ্গী স্কোয়ার মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাপলা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।
ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠি নয় আধিবাসীর স্বীকৃতি দাবী
“আদিবাসী জাতিসমূহের দেশান্তর: প্রতিরোধের সংগ্রাম” শ্লোগানে খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসে নানা কর্মসূচী পালন করেছে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন। বৃহস্পতিবার বেলা ১০টায় খাগড়াছড়ি সদরের রাজ্যমনি পাড়া এলাকা থেকে বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম, বাংলাদেশ ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরাম ও বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস কাউন্সিলের উদ্যোগে শোভাযাত্রা বের করা হয়। শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শোভাযাত্রাটি একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়।
বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি চাইথোয়াই মারমার সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন, নারী নেত্রী নমিতা চাকমা, ওয়াইডাব্লিউসিএ সাধারণ সম্পাদক প্রতিমা রোয়াজা, বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস্ কাউন্সিল (বিএমএসসি) জেলা সভাপতি মংচিংহ্লা মারমা, কলেজ শাখার সভাপতি মাপ্রু মারমা,ত্রিপুরা স্টুডেন্টস্ ফোরাম বাংলাদেশ (টিএসএফ) জেলা সহ-সভাপতি বিপুল বিকাশ ত্রিপুরা প্রমুখ।
অন্যদিকে, বেলা ১১টায় জেলা সদরের খাগড়াপুর কমিউনিটি সেন্টারে আদিবাসী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে জনসংহতি সমিতি এমএন লারমা গ্রুপ। সংগঠনের কেন্দ্রীয় রাজনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক বিভূরঞ্জন চাকমার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় কেন্দ্রীয় ও জেলা ইউনিটের নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা করেন।
বক্তারা অবিলম্বে বাংলাদেশে বসবাসরত আদিবাসীদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি, পাহাড় ও সমতলের আদিবাসীদের ভূমি ও প্রথাগত অধিকার নিশ্চিত এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির দ্রুত বাস্তবায়নে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ