ঢাকা, বৃহস্পতিবার 20 September 2018, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন অগ্রগতি ‘কিছুটা হয়েছে’: পররাষ্ট্র সচিব

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক সোমবার আবারো বলেছেন, প্রত্যাবাসন যে কোনো দেশের জন্যই খুব জটিল ও কঠিন একটি ব্যাপার, যা রাতারাতি করা সম্ভব নয়।

ইউএনবির এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য তারা (মিয়ানমার) কী করেছে তা আমাদের দেখাচ্ছে। আমি বলবো কিছু একটা হয়েছে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া পররাষ্ট্র সচিব হক বলেন, ‘রোহিঙ্গা বিষয়ে এত তারাতারি সবকিছু সমাধান হবে না। তবে আমরা আশাবাদী।’

তিনি বলেন, এখানে কিছু নির্দিষ্ট বিষয় উপস্থাপন করতে হবে, যাতে রোহিঙ্গারা তাদের মাতৃভূমিতে আত্মবিশ্বাস ও নিরাপদে ফিরতে পারে। এই কাজের জন্য কিছু সময় প্রয়োজন।

গত শুক্রবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সহজীকরণের জন্য রাখাইন রাজ্যে সঠিক পরিবেশের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি সেখানে রোহিঙ্গাদের ঘর-বাড়ি নির্মাণের কথা বলেছিলেন।

শনিবার জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের সদস্যদের সাথে রাখাইন রাজ্য সফর করে সেখানকার ধ্বংসস্তুপ প্রত্যক্ষ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় পরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সাথে উপস্থিত ছিলেন মিয়ানমারের সমাজ কল্যাণ ও ত্রাণমন্ত্রী ইউন মিয়াত ওয়ে।

তারা বাংলাদেশ ও মিয়ানমার আন্তর্জাতিক সীমান্তের পাশে বর্তমানে বসবাসকারী রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়েও সম্মত হয়েছেন।

তারা বিপি ৩৪ এবং বিপি ৩৫ সীমান্ত পিলারে একটি যৌথ পরিদর্শনের বিষয়ে একমত হন।

উভয় মন্ত্রীই বন্ধুসুলভ প্রতিবেশী মনোভাব নিয়ে রাখাইন রাজ্যের বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা ইস্যু সমাধানে তাদের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

তারা দুই দেশের ঘনিষ্ঠ অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য সম্পর্ক উন্নয়নেও সম্মত হয়েছেন।-ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ