ঢাকা, বুধবার 15 August 2018, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫, ৩ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তির ফেসবুক স্ট্যাটাস শেয়ার করায় কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে প্রধান শিক্ষক আটক

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করে দেয়া একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে লাইক ও শেয়ার করার অভিযোগে কুমারখালীর জেএন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মকছেদ আলীকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় কুমারখালী শহরের গণমোড়স্থ কাঁচা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ৪নং পৌর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফরিদ ইকবালের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই শিক্ষককে আটক করা হয়। তিনি রেবেকা সুলতানা নামের ফেসবুক আইডির পোস্ট শেযার করেছিলেন।
কুমারখালী থানার ওসি আবদুল খালেক জানান, সাম্প্রতিককালের ছাত্র আন্দোলনকে পুঁজি করে সরকার পতনের ডাক দিয়ে করা রেবেকা সুলতানা নামের একটি ফেসবুক আইডিতে প্রধানমন্ত্রীকে অশালীন কটূক্তি করে স্ট্যাটাস দেয়া হয়। আটককৃত মকছেদ আলী স্ট্যাটাসটি লাইক-শেয়ার করে প্রচারণা ও প্রকাশনায় সহযোগিতা করেছেন। বিষয়টি কুমারখালী ৪নং পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফরিদ ইকবাল লিখিত অভিযোগসহ পুলিশের নজরে আনলে তাকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
নদীতে নিখোঁজ স্বামীর লাশ বহলায় উদ্ধার
কুষ্টিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে নৌকা থেকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দেওয়া স্বামী এসএম সাব্বিরেরর লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। নিখোঁজের দুদিন পর সোমবার রাতে কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের গড়াই নদীর বহলা গোবিন্দপুর নামক স্থান থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।
এর আগে শনিবার দুপুরে শহরের গড়াই নদীর বড় বাজার ঘাট এলাকায় মাঝ নদীতে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে নৌকা থেকে স্বামী এস এম সাব্বিরকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় তারই স্ত্রী বিলকিস ওরফে নদী। প্রবল স্রোতে সাব্বির নদীতে তলিয়ে যান। তখন থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।
কুষ্টিয়া ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার ইসাহাক আলী বিশ্বাস বলেন, নিখোঁজের পর থেকে সাব্বিরের লাশের সন্ধানে আমরা বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করেছি। সোমবার বিকালে সংবাদ আসে গড়াই নদীর বহলা গোবিন্দপুর নামকস্থানে একটি লাশ ভেসে আছে। এরপর ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।
এদিকে এ ঘটনায় আটক স্ত্রী বিলকিস ওরফে নদী বর্তমানে জেলহাজতে রয়েছেন।
চাচাতো ভাইয়ের অস্ত্রের আঘাতে যুবক খুন
কুষ্টিয়ায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মিথুন মন্ডল (৩২) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সোমবার রাত ৯টায় কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝালুপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে নিহত যুবকের  চাচাতো ভাই শিমুল মন্ডল পলাতক।
এলাকাবাসী জানান, দুজনের মধ্যে নারীঘটিত বিষয়ে বিরোধ ছিল। রাতে ঝালুপাড়া গ্রামের একটি চায়ের দোকানে মিথুন মন্ডল ও শিমুল মন্ডলের বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে শিমুল দৌড়ে বাড়ি থেকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে আসে এবং মিঠুনের ঘাড়ে ও পেটে কোপায়। উপস্থিত লোকজন দ্রুত মিথুনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুর খবরে আত্মীয়স্বজন কান্নায় ভেঙে পড়েন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তবে শিমুল হোসেনকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন জানান, ঘটনার পর পরই শিমুল আত্মগোপন করেছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ