ঢাকা, মঙ্গলবার 20 November 2018, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বিজেপিকে হটিয়ে ভারতকে স্বাধীন করার ঘোষণা মমতার

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

২০১৯ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে হটিয়ে ভারতকে স্বাধীন করার ঘোষণা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বেহালায় স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন মমতা।

তিনি বলেন, বিজেপি দেশকে পরাধীন করেছে। এর আগে রাজ্যসভায় সাংবাদিক বৈঠকে এনআরসি নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেন, বিজেপির নেতারা এত বড় বড় কথা বলছেন। তাদের বাবা-মার বার্থ সার্টিফিকেট আছে? অমিত শাহর পিতাজি-মাতাজির বার্থ সার্টিফিকেট আছে? অটলজি অসুস্থ, না হলে তাকেও জিজ্ঞাসা করতাম, তার বাবা-মার বার্থ সার্টিফিকেট আছে কি না।

নিজের কথা উল্লেখ করে মমতা বলেন, আমার যেমন বার্থ সার্টিফিকেট নেই। এই বাংলার একটি গ্রামে আমার জন্ম হয়েছিল। জন্মের পরে মা কলকাতায় চলে আসেন। ভাগ্যিস বাংলায় জন্মেছিলাম, নাহলে বলত অনুপ্রবেশকারী। তবে আমার বাবা-মায়ের বার্থ সার্টিফিকেট নেই। চাইলে দিতে পারব না।

এদিন অাসাম থেকে বেঙ্গল ইউনাইটেড ফোরামের প্রতিনিধিরা রাজ্যসভায় এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতার সঙ্গে দেখা করেন। তাদের কাছে দুর্ভোগের কথা শোনেন মুখ্যমন্ত্রী। তারা মমতাকে বলেন, প্রতিবাদ করলেই ডিটেনশন ক্যাম্পে পুরে দেওয়া হয়েছে। জেলে পোরা হচ্ছে।

পরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথ্য তুলে ধরে বলেন, '১৯৬৪, ১৯৬৫, ১৯৬৬ সালের পরিচয়পত্র ও সার্টিফিকেট থাকা সত্ত্বেও, অনেকের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। স্বাধীনতা সংগ্রামী ধ্রুবজ্যোতিপ্রসাদ বসুর পরিবারের সদস্যদের নামও বাদ গিয়েছে। ৪০ লক্ষের মধ্যে ২৫ লক্ষ হিন্দু বাঙালি, ১৩ লক্ষ মুসলিম বাঙালি এবং দু’লক্ষ অন্য ভাষাভাষীর মানুষ আছে। এটা বাংলাভাষী মানুষের উপরে আক্রমণ। যাতে কেউ প্রতিবাদ না করে, তার জন্য নানারকম ভয় দেখানো হচ্ছে। অাসাম সরকার আমাদের বিরুদ্ধেও কেস করেছে। তবে আমরা কিছুতেই ভয় পাই না।'

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ