ঢাকা, বৃহস্পতিবার 16 August 2018, ১ ভাদ্র ১৪২৫, ৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনায় ট্রাফিক সপ্তাহের ১০ দিনে সাড়ে ৪ হাজার মামলা

খুলনা অফিস : ট্রাফিক সপ্তাহ ২০১৮ উপলক্ষে খুলনা মেট্রোপলিটপনে দশ দিনের অভিযানে মোটরযান আইনে ৪ হাজার ৬৩১টি মামলায় জরিমানা আদায় হয়েছে ২০ লাখ ২ হাজার ৩শ’ টাকা।
গত ৫ আগস্ট হতে শুরু হওয়া ’ট্রাফিক সপ্তাহর ১০ দিনে খুলনা মেট্রোপলিটন এলাকায় বাস, ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, কাভার্ডভ্যান, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার, মোটরবাইক কাগজপত্র চেক করে মোট ৪ হাজার ৬৩১টি মামলা রঞ্জু করা হয়। এতে মোট জরিমানা আদায় হয়েছে ২০ লাখ ২ হাজার ৩শ’ টাকা। এর মধ্যে ’মোটরযান অধ্যাদেশ-১৯৮৩’ এর বিভিন্ন ধারায় যানবাহনের ত্রুটির কারণে ১ হাজার ৪১৫টি যানবাহনের বিরুদ্ধে এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকা, সিটবেল্ট ব্যবহার না করা, চলন্ত অবস্থায় মোবাইলে কথা বলা, হেলমেট ব্যবহার না করা, মোটর সাইকেলে দু’এর অধিক আরোহী থাকা, দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানো, আদেশ অমান্য করা ইত্যাদি কারনে ৩ হাজার ২১৬ জন চালকের বিরুদ্ধে মামলা রঞ্জু করা হয়। এই সময় পুলিশকে সহযোগিতা করতে মাঠে সক্রিয় ছিল স্কুল শিক্ষার্থীরা।
অপরদিকে গত ৫ আগস্ট বিআরটিএ’র কর্মব্যস্ততা বেড়ে যাওয়ায় কর্মঘন্টা বাড়িয়ে সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা করেছিল সংস্থাটি। মঙ্গলবার তা কমিয়ে পূর্বের কর্মঘন্টা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিআরটিএ’র খুলনা জেলা কার্যালয়। মঙ্গলবার ’ট্রাফিক সপ্তাহের শেষ দিনে শহরের ২৯টি পয়েন্ট বাস, ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, কাভার্ড ভ্যান, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার, মোটরবাইকের কাগজপত্র চেক করে মোট ৩৭ টি মামলা রুজু করা হয়। এ মামলা সমূহে জরিমানা আদায় হয়েছে ১ লাখ ১৪ হাজার ৩শ’ টাকা।
কেএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) মো. কামরুল ইসলাম বলেন, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে বাইক ড্রাইভারদেরকে গাড়ির সকল ডকুমেন্টস সঙ্গে রাখা এবং মোটরসাইকেল আরোহীকে হেলমেট ব্যবহার করার আহ্বান জানানো হয়েছে। গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোনে কথা না বলার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ