ঢাকা, বৃহস্পতিবার 16 August 2018, ১ ভাদ্র ১৪২৫, ৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

১৫ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে ১২তম আন্তর্জাতিক উইমেন্স এসএমই এক্সপো বাংলাদেশ ২০১৮

চট্টগ্রাম ব্যুরো: আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর উদ্যোগে এবং রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুারো, দি ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার্স অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, এসএমই ফাউন্ডেশন ও জুট ডাইভার্সিফিকেশন প্রমোশান সেন্টার এর সহযোগিতায় শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী 12th International Women’s SME Expo Bangladesh 2018. মেলা ।এই আয়োজন উপলক্ষে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর উদ্যোগে গত ১১ আগষ্ট চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর সেমিনার হলে এক সাংবাদিক সম্মেলন এর আয়োজন করা হয়।
সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন 12th International Women’s SME Expo Bangladesh 2018 এর চেয়ারপার্সন ও চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর ভাইস-প্রেসিডেন্ট ডা. মুনাল মাহবুব। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর প্রেসিডেন্ট মনোয়ারা হাকিম আলী। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  সাবিহা নাহার বেগম এমপি। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর সিনিয়ার ভাইস-প্রেসিডেন্ট আবিদা মোস্তফা, রুহী মোস্তফা, ভাইস-প্রেসিডন্ট জেসমিন আক্তার এবং চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি পরিচালক ও সদস্যবৃন্দ এবং তানজিম এন্টারপ্রাইজ এর কর্ণধার ও আনোয়ারা উপজেলা পরিষদ এর চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী।
সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, আমাদের দেশের সর্ববৃহৎ উৎপাদনশীল ও বৈদেশিক মূদ্রা আয়ের শিল্পখাত “গার্মেন্টস শিল্প” পুরোপুরি নারী নির্ভর। এছাড়া অন্য দুটি বৃহত্তর খাত চা এবং মৎস্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পও নারী শ্রমিক নির্ভরশীল। যুগের পরিবর্তনে আজ নারী শ্রমিক ও পেশাজীবিরা সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে অবদান রাখছেন। এরপরও দুঃখের বিষয় যে, আমাদের অর্থনীতিতে যে নারীদের এতবড় সহযোগিতা এবং উপস্থিতি, তা স্বত্বেও তাদেরকে বার বার থাকতে হচ্ছে উপেক্ষিত। এখনও আমাদের অর্থনীতিতে গৃহিনীদের দেওয়া শ্রমের কোন মূল্যায়ন হয়না, অথচ পৃথিবীর অন্যদেশে এর ভিন্ন চিত্র। বাংলাদেশের পরিবর্তনশীল সমাজে আজকে নারীদের অংশগ্রহণ বেড়েছে সর্বক্ষেত্রে। আজ নারীদের সমঅধিকার বাস্তবায়ন চলছে। আজ থেকে বহুদিন আগে প্রতিকূলতার মাঝে আমাদের পথিকৃৎ মহিয়সী নারীরা যদি তাদের উপস্থিতি এবং কর্মের মাধ্যমে আমাদের জন্য পথের সৃষ্টি করতে পারেন, তাহলে আমরা তা এগিয়ে নিতে পারব না কেন?
সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়,আমাদের দীর্ঘ দিনের কর্ম প্রচেষ্টা এবং নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে ধারাবাহিক কর্মকান্ডের অংশ হিসেবে আমরা চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর উদ্যোগে এবং রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরো, দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয় কর্র্তৃক প্রতিষ্ঠিত SME Foundation, জুট ডাইভারর্সিফিকেশন প্রমোশান সেন্টার এর সহযোগিতায় মহিলা উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যসহ ঝগঊ পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ, প্রচার, প্রসার, আয় বৃদ্ধি ভোক্তা-উদ্যোক্তাদের মাঝে পারষ্পরিক সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে আগামী ১৫ অক্টোবর   থেকে রেলওয়ে স্টেডিয়াম পলোগ্রাউন্ড মাঠে মাসব্যাপী 12th International Women’s SME Expo Bangladesh 2018 আয়োজন এর উদ্যোগ গ্রহন করেছি। উল্লেখ্য যে, অত্র অঞ্চলের মহিলা উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতকরণের লক্ষ্যে আমরা ২০০২ সাল থেকে পর পর ৫(পাঁচ) বছর স্থানীয় বাওয়া স্কুল মাঠে মাসব্যাপী ডঊ ঈদ বাজার আয়োজন করেছিলাম এবং পরবর্তী ১১ (এগার) বছর যাবৎ স্থানীয় রেলওয়ে স্টেডিয়াম পলোগ্রাউন্ড, চট্টগ্রামে ধারাবাহিকভাবে International Women’s SME Expo Bangladesh আয়োজন করে আসছি। যা বাংলাদেশে মহিলা উদ্যোক্তা কর্তৃক আয়োজিত সর্ববৃহৎ মেলা। এবছর ইরান, ভারত, চায়না, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড এর উদ্যোক্তাগণ তাদের অংশগ্রহনের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা আয়োজন করছি 12th International Women’s SME Expo Bangladesh 2018 যা দক্ষিণ এশিয়ায় ঝগঊ শিল্পখাতে মহিলা উদ্যোক্তা কর্তৃক আয়োজিত সর্ববৃহৎ বাণিজ্য সম্মিলনে রূপলাভ করেছে।
সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়,দ্বাদশ বারের মত আয়োজিত এই মেলায় ছোট-বড় প্রায় সাড়ে তিনশটি স্টল এবং পনেরটি প্যাভেলিয়ন করার সুযোগ থাকবে। যেখানে, নারী উদ্যোক্তাদেরকে স্বল্প মূল্যে অংশগ্রহনের সুযোগ প্রদান করা হয়েছে। মেলার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশ ক্যাম্প, সিসি টিভি ক্যামেরা, বেসরকারী নিরাপত্তা রক্ষী, ফায়ার সার্ভিস-সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখা হবে। শিশুদের বিনোদনের জন্য বিনোদন পার্কসহ নগরীর স্কুল গুলোতে শিশুদের জন্য বিনামূলে টিকেট সরবরাহের ব্যবস্থা রাখা হবে। মেলার সার্বিক কর্মকান্ড সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য সার্বক্ষনিকভাবে অফিস স্থাপন করা হবে।এবারের আয়োজনে সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে রয়েছে রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরো, দি ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার্স অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি ও শিল্প মন্ত্রণালয় কর্র্তৃক প্রতিষ্ঠিত SME Foundation, জুট ডাইভার্সিফিকেশন প্রমোশন সেন্টার। এসএমইখাতে নারী উদ্যোক্তাদের এসএমই ব্যাংক সমূহের সাথে সেতু বন্ধন তৈরী করতে বাংলাদেশ  ব্যাংক এর সার্বিক সহযোগিতায় আয়োজন করা হচ্ছে “৫ম এসএমই ব্যাংকিং ম্যাচ-মেকিং ফেয়ার”। যেখানে তাৎক্ষণিক ভাবে ঋণ গ্রহনে আগ্রহী এসএমই নারী উদ্যোক্তাদের  নির্বাচন করে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে ঋণ প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে এবং ঋণ গ্রহনে যোগ্য সংখ্যক উদ্যোক্তাকে ঋণ প্রদান করা হবে।ইতিমধ্যে মেলার হেলথ্ কেয়ার পার্টনার হয়েছেন সার্জিস্কোপ হাসপাতাল লিমিটেড। ই-কমার্স পার্টনার শপার্স ওয়ার্ল্ড মেলায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে তাদের পণ্যের প্রচার-প্রসারের লক্ষে স্টল-প্যাভেলিয়ন এর মাধ্যমে অংশগ্রহনের সুযোগ এবং বিভিন্ন ভাবে স্পন্সরের মাধ্যমে ব্র্যান্ডিং এর সুযোগ পাবেন। মেলায় ইভেন্ট ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকবে তানজিম এন্টারপ্রাইজ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ