ঢাকা, শনিবার 18 August 2018, ৩ ভাদ্র ১৪২৫, ৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

‘পরিবহন খাতে দুর্নীতি, চাঁদাবাজ ও মাফিয়া চক্র ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার’

স্টাফ রিপোর্টার : পরিবহন খাতে দুর্নীতি, চাঁদাবাজ ও মাফিয়া চক্র ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার, এমন মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ বিপ্লবী সড়ক পরিবহন ফেডারেশনের সভাপতি মনজুরুল আহসান খান। গতকাল শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন। এ সময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন একই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আসলাম খান।
হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, ‘সরকার যদি মাফিয়া চক্রের চাঁদাবাজি থেকে আমাদের রক্ষা করতে না পারে তাহলে আমরাও সড়কে গাড়ি নামাব না। সড়কে গাড়ি না চললে, দুর্ঘটনা ঘটবে না বলেন মনজুরুল আহসান। তিনি বলেন, ‘সড়ক পরিবহন খাত কখনোই দুর্নীতিমুক্ত ছিল না। বর্তমান সরকার সড়ক পরিবহন সেক্টরে দুর্নীতি বন্ধে ব্যর্থ হয়েছে। ফলে প্রতিনিয়ত চাঁদাবাজদের দখলে যাওয়ায় দুর্ঘটনা বাড়ছে। পরিবহনখাতের এ নেতা আরও বলেন, ‘এরশাদের শাসনামলে চাঁদাবাজি তুলনামূলক বেশি হয়েছিল। যা অসহনীয় অবর্ণীয় ছিল।’
তিনি বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় আসুক কিংবা নাআসুক, সড়কে একই নৈরাজ্য পেট্রোলবোমাসহ ভয়াবহতার জন্ম দিয়েছিলো। বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে চাঁদাবাজি বর্তমানে তুলনায় আরও ৫ গুণ বেশি ছিল। বিএনপি আন্দোলনের নামে গাড়ি পুড়িয়ে সড়ক পরিবহন সেক্টরে সব থেকে বড় ক্ষতি ডেকে এনেছে বলেও মন্তব্য করেন শ্রমিকদের নেতা মনজুরুল আহসান খান।
বক্তব্যে বিপ্লবী সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসলাম খান বলেন, ‘কোনো চালকই ইচ্ছাকৃতভাবে সড়কে দুর্ঘটনার নামে মানুষ হত্যা করে না। মানুষ হত্যা মহাপাপ। কিন্তু চাঁদাবাজদের চাহিদা মেটাতে গিয়ে, চালকেরা আগে পৌঁছে যাতে বেশি যাত্রী পায় সে জন্য তারা একটির সঙ্গে আরেক বাসের পাল্লা দেয়। ফলে দুর্ঘটনা ঘটে যায়। তিনি বলেন, ‘চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, দালালসহ মাফিয়া চক্রদের সিন্ডিকেট থামানোর পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে সড়ক কখনোই নিরাপদ হবে না। নিরাপদ সড়কের জন্যে সবার আগে দুর্নীতি ও রাঘববোয়ালদের নৈরাজ্য বন্ধ করতে হবে। তবেই একটি নিরাপদ সড়ক ব্যবস্থা সম্ভব হবে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ