ঢাকা, শনিবার 18 August 2018, ৩ ভাদ্র ১৪২৫, ৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জাতীয় শোক দিবস পালিত

রাজশাহী: জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গত বুধবার রাজশাহী মহানগর আ’লীগের শোকর‌্যালি অনুষ্ঠিত হয় -সংগ্রাম

চট্টগ্রাম ব্যুরো: যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে  গত বুধবার চট্টগ্রামে সাবেক রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৮ পালিত হয়েছে।এ উপলক্ষে সরকারী,বেসরকারী প্রতিষ্ঠান,বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন,সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন র‌্যালী,আলোচনা সভা,দোয়া ও মিলাদ মাহফিল ,জেয়াফতের আয়োজন করে।
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে  বুধবার সকালে নগর ভবনের সম্মুখস্থ বঙ্গবন্ধু চত্বরে স্থাপিত   বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। ভারপ্রাপ্ত মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনীর নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এসময় কাউন্সিলর  সহ কর্পোরেশনের পদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আঞ্চলিক অফিস,ওয়ার্ড কার্যালয়,হাসপাতাল সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে    মিলাদ মাহফিল, আলোচনা সভা এবং সূর্য উদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পতাকা অর্ধনমিত করন,কালো ব্যাজ ধারন ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়- চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসে কালো ব্যাজ ধারণ করে সকাল ৮.৩০ টায় চ.বি. কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে চ.বি. উপাচার্যের নেতৃত্বে শোকর‌্যালি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে চ.বি. বঙ্গবন্ধু চত্বরে এসে শেষ হয়। এরপর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন চ.বি. উপাচার্য ও উপ-উপাচার্য। অতঃপর পুস্পমাল্য অর্পণ করেন চ.বি. শিক্ষক সমিতি, ডিনবৃন্দ, প্রভোস্টবৃন্দ, সভাপতি ও পরিচালকবৃন্দ, মহিলা সংসদ, অফিসার সমিতি, কর্মচারী সমিতি, কর্মচারী ইউনিয়ন, চ.বি. ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ, উস প্রাইমারী এন্ড হাই স্কুল, সাংবাদিক সমিতি, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে এক আলোচনা সভাও অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়।
আগ্রাবাদস্থ ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে ফ্রি গাইনী ও ডেন্টাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল বুধবার ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল আগ্রাবাদ, চট্টগ্রামে ফ্রি গাইনী ও ডেন্টাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। ক্যাম্পে আগত রোগীদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন, গাইনী কনসালটেন্ট ডাঃ ফারজানা হাসীন মুক্তি, ডেন্টাল সার্জন ডাঃ নাজিয়া ও ডাঃ মোঃ আল আমীন। তাছাড়া হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে বিনা মূল্যে খাবার বিতরণ করা হয়।উল্লেখ্য,হালিশহর গরিবে নেওয়াজ উচ্চ বিদ্যালয়ে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ও মেডিকেল ক্যাম্প করা হয়।উক্ত ক্যাম্পগুলোতে রোগীদের ব্যাপক সাড়া পাওয়া যায়। ক্যাম্পে আগত রোগীকে বিনা মূল্যে চিকিৎসা দেয়া হয়।
খুলনা
শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় খুলনায় স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করা হয়েছে। গত বুধবার শোকাবহ এ দিনে ভোর থেকে হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা আর শ্রদ্ধাঞ্জলিতে বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী পালন করা হয়।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মহানগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করে আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন। পাশাপাশি নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করে মিলাদ মাহফিলেরও আয়োজন করা হয়। অনুরূপভাকে জেলার বিভিন্ন উপজেলায়ও একই কর্মসূচি পালিত হয়।
খুলনা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকাল সাড়ে আটটায় মহানগরীর নিউমার্কেট চত্বর হতে শোকর‌্যালি শুরু হয়ে বাংলাদেশ বেতারে গিয়ে বঙ্গন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। এতে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান, খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) নবনির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ হেলাল হোসেন প্রমুখ।
খুলনা সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৮টায় নগর ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, সকাল ৯টায় শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধুর জীবনীর ওপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনী, পরে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় জামে মসজিদে পবিত্র কুরআনখানী, সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে শোকর‌্যালি শহিদ তাজউদ্দিন আহমদ প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে, সকাল ৯টায় অদম্য বাংলা চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমামের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, সাড়ে ৯টায় আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন, সকাল ১০টায় খুবির সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে আলোচনা সভা, বাদ যোহর বিশ্ববিদ্যালয় জামে মসজিদে দোয়া-মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
খুলনা প্রেস ক্লাব শোক দিবস উপলক্ষে ক্লাবের পক্ষ থেকে ক্লাবের অভ্যন্তরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং এরপর ক্লাবের হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও দোয়া-মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
রাজশাহী
গত বুধবার রাজশাহীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়। এ উপলক্ষে নগরীর কুমারপাড়ার মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন, জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন নগর আওয়ামী লীগ নেতারা।
মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নবনির্বাচিত সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন নেতাকর্মীদের নিয়ে দলীয় কার্যালয়ের পাশে স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
পরে মহানগর কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্যের পর বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এরপর দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি শোক পদযাত্রা বের করা হয়। এটি মহানগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টসহ বিভিন্ন প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।
নেত্রকোনা
নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে নেত্রকোনায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে (১৫ আগস্ট) সকাল ৯ টায় শহরের মোক্তারপাড়া মুক্তমঞ্চে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ড, জেলা আওয়ামীলীগ, নেত্রকোনা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠন। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষার্থী, সাংস্কৃতিক সংগঠন, এনজিওসহ বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়েছে। পরে জেলা পাবলিক হলে আলোচনা সভা ও উপকারভোগীদের মাঝে চেক বিতরন করা হয়েছে।
নাটোর
নাটোরে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। ভোর থেকে সকল সরকারি-বেসরকারি ভবন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলণ করা হয়। সকালে জেলা প্রশাসন চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক দল এবং সামাজিক সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সংগঠনের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পন করা হয়। পরে সেখান থেকে একটি শোক র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক দিয়ে জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য মোঃ শফিকুল ইসলাম শিমুল। জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান এবং নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি।
মেহেরপুর
নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে মেহেরপুরে পালিত হচ্ছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৪৩ তম শাহাদৎ বার্ষিকী। আজ বুধবার সকাল ৯ টার সময় শহীদ সামসুজ্জোহা পার্ক থেকে মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে একটি শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্ত্বরে গিয়ে শেষ হয়।
শরীয়তপুর
যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সাথে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে শরীয়তপুরে জাতীয় শোক বিদস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত হয়েছে।
এ দিবস উপলক্ষ্যে আজ বুধবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধ-নমিত রাখা হয়।
সকাল ১০ টায় শরীয়তপুর সদর উপজেলা মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। শরীয়তপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোতাকাব্বির আহ্মেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের, পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ খলিলুর রহমান, শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ রফিকুল ইসলাম কোতোয়াল প্রমুখ।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিনম্র শ্রদ্ধা  ও ভালোবাসার মধ্যে দিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাত বার্ষিকী জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালিত হয়েছে।
দিবসটি উপলক্ষে শোক র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন, আলোচনাসভা ও কাঙ্গালী ভোজ ও বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
কুড়িগ্রাম
যথাযোগ্য মর্যাদা ও বিনম্র শ্রদ্ধায় কুড়িগ্রামে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।
সকালে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এছাড়া দোওয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। পরে দলীয় কার্যালয় থেকে একটি শোক র‌্যালি বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে।
এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাফর আলীসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
নীলফামারী
নীলফামারীতে স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত হয়েছে। বুধবার সূর্যদয়ের সাথে সাথে জেলার সকল সরকারী, আধাসরকারী, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও বেসরকারী ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন করা হয়। সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বর থেকে সর্বস্তরের মানুষ কালো ব্যাজ ধারণ করে শোক র‌্যালী বের করে শহর প্রদক্ষিণ করে।
রংপুর
শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় রংপুরে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করা হচ্ছে। বুধবার রংপুর নগরীর ডিসির মোড়স্থ বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে সকালে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী পালন করা হয়। রংপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকাল সাড়ে ৯টায়  মহানগরীর জিলা স্কুল চত্বর হতে শোকর‌্যালি শুরু হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ করে রংপুর টাউন হল চত্তর এসে শেষ হয়। এর আগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে।
কুমারখালী (কুষ্টিয়া)
জেলার কুমারখালীতে নানান আয়োজনে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকীতে জাতীয় শোক দিবস-২০১৮ পালন  করা হয়েছে। এ উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, র‌্যালি, আলোচনা সভা, দোয়া অনুষ্ঠান, স্বেচ্ছায় রক্তদান এবং বিভিন্ন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসন কুমারখালী পাবলিক লাইব্রেরী হতে শোক  র‌্যালি বের করে। র‌্যালিটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে আবুল হোসেন তরুন অডিটোরিয়ামে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে আবুল হোসেন তরুন অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শাহীনুজ্জামান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংসদ সদস্য, ৭৮ কুষ্টিয়া-৪ বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কুমারখালী আবদুল মান্নান খান, সহকারী কমিশনার (ভূমি)  মুহাম্মদ মুছাব্বেরুল ইসলাম, কুমারখালী থানার অফিসার ইন-চাজর্ মোঃ আব্দুল খালেক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ