ঢাকা, সোমবার 24 September 2018, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

শ্রীপুরে ডাকাতি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

গাজীপুরের শ্রীপুরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় ডাকাতরা নগদ প্রায় তিন লাখ টাকা ও সাড়ে চার ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনায় গ্রামাবাসী আল-আমীন (৩৫) নামে এক ডাকাতকে আটক করে গণপিটুনির পর পুলিশে দিয়েছে। তিনি হবিগঞ্জ জেলা সদরের রামপুর গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে।

কৃষক বাবুল মিয়া জানান, রাত ৩টার দিকে দরজা ভেঙে ৬ সদস্যের একদল ডাকাত ঘরে ঢুকে। তারা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে বাড়ির লোকদের হাত-পা বেঁধে ফেলে। পরে ওয়্যারড্রপের তালা ভেঙ্গে নগদ ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ও ৩ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে।

তাদের চিৎকারে বাড়ির ভাড়াটিয়া সাজু সরদার দরজা খুললে ডাকাতরা ওই পরিবারের লোকজনদেরও হাত-পা বেঁধে নগদ ২৩ হাজার টাকা ও দেড় ভরি স্বর্ণালংকার লুটে নেয়।

পরে ডাকাতি শেষে চলে যাওয়ার সময় প্রতিবেশীরা ডাকাতদের পিছু নেয়। ডাকাতদের ধাওয়া করে পার্শ্ববর্তী মোল্লাপাড়া থেকে আল-আমীনকে আটক করে গণপিটুনির পর পুলিশে দেয়।

ডাকাত আল-আমীনের ভাষ্যনুযায়ী, কৃষক বাবুলের বাড়ির রাজমিস্ত্রি মান্নান ও জামাল তাকে খবর দিয়ে হবিগঞ্জ থেকে নিয়ে আসে। তারা কৃষকের পাকা বাড়ির নির্মাণ কাজ করছিল। রাজমিস্ত্রিদের বাড়িও হবিগঞ্জে।
একই রাতে শ্রীপুর পৌর শহরের কেওয়া গ্রামের জুলহাস উদ্দিন মাস্টারের ছেলে শরীফুল ইসলামের বাড়িতে ও বৈরাগীরচালা এলাকার আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে।
শ্রীপুর থানার এসআই মহসীন জানান, আহত ডাকাতকে চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।
এর আগে গত ৩ আগস্ট রাতে শ্রীপুর পৌর শহরের চন্নাপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী সাখাওয়াতের বাড়ির দরজা ভেঙ্গে লোকদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা নগদ দেড় লাখ টাকা, একটি মোটরসাইকেল, স্বর্ণালঙ্কার ও মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ