ঢাকা, সোমবার 19 November 2018, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

হাসপাতালে সেবা না পেয়ে ভ্যানে সন্তান প্রসব

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

হাসপাতালে সেবা না পেয়ে জরুরি বিভাগের সামনে ভ্যানের উপর জনসম্মুখে সন্তান প্রসব করেছেন এক প্রসূতি। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সদর উপজেলার সাহাপাড়া ইউনিয়নের সাদেকপুর গ্রামের বাসিন্দা চাঁন মিয়ার স্ত্রী লাইজু বেগমের প্রসব বেদনা শুরু হলে তাকে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে আনা হয়। ওই সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক রিপন কুমার মোস্তফি প্রসব বেদনায় ছটফট করতে থাকা লাইজুর চিকিৎসার ব্যবস্থা না করে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলতে থাকেন।

রোগীর বেদনা আরও তীব্র হলে জরুরি বিভাগের পাশে থাকা এক মহিলা খোলা আকাশের নিচে ভ্যানের উপর নিয়ে যায়। তার সহযোগিতায় জনসম্মুখেই একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন লাইজু। পরে রোগীর স্বজন ও হাসপাতালের লোকজনের তোপের মুখে প্রসূতি মা ও নবজাতককে হাসপাতালের বেডে নেয়া হয়।

চাঁন মিয়া বলেন, তার স্ত্রী যখন প্রসব বেদনায় ছটফট করছে তখন তিনি বারবার দায়িত্বরত ডাক্তারকে অনুরোধ করেও সেবা পাননি। অবশেষে খোলা আকাশের নিচেই তার স্ত্রীকে সন্তান প্রসব করতে হয়েছে। তিনি এ ঘটনার বিচার চান।

প্রসূতি লাইজু বলেন, তিনি যখন প্রসব ব্যথায় কাতর তখন ওই হাসপাতালের সেবিকারাও তাকে সাহায্য করতে কেউ আসেনি।

যোগাযোগ করা হলে চিকিৎসক রিপন কুমার দায়িত্বহীনতার কথা অস্বীকার করেন।

গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক চিকিৎসক অমল চন্দ্র সাহা বলেন, ‘ঘটনাটি লোক মুখে শুনতে পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে ফোন করে ওই শিশুটির চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি।’ দায়িত্বহীনতার অভিযোগ প্রমাণিত হলে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।
সূত্র: ঢাকা টাইমস

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ